বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯
Wednesday, 15 May, 2019 11:42:15 am
No icon No icon No icon

পাইলট ও এয়ারক্রাফটের লাইসেন্স প্রদানে দুর্নীতি করে বেবিচক: দুদক

//

পাইলট ও এয়ারক্রাফটের লাইসেন্স প্রদানে দুর্নীতি করে বেবিচক: দুদক


টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: পাইলট, ফ্লাইং ইঞ্জিনিয়ার ও এয়ারক্রাফটের লাইসেন্স প্রদানের ক্ষেত্রে নির্ধারিত শর্তাদি পূরণ না করেও অর্থের বিনিময়ে লাইসেন্স দিয়ে থাকে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। আর পাইলটের লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে আর্থিক লেনদেন ছাড়াও স্বজনপ্রীতি ও পছন্দের প্রার্থীকে গুরুত্ব দেওয়ারও অভিযোগ করেছে দুদক।রাষ্ট্রপতির কাছে হস্তান্তর করা দুদকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে-AOC ক্যাটাগরি অনুসারে বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে ব্যাংক গ্যারান্টি/ক্যাশ লিমিট দেওয়া থাকে। এ লিমিট অতিক্রম করলে এয়ারলাইন্স বাতিল হওয়ার বিধান রয়েছে।
লিমিট অতিক্রম হলে সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইন্স নির্দিষ্ট দিন পর্যন্ত টাকা পরিশোধ না করলে উক্ত এয়ারলাইন্স বাতিল হওয়ার কথা থাকলেও বেবিচকের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অসাধু কর্মকর্তাগণ মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে ঠুনকো অজুহাতে অনেক এয়ারলাইন্সের লাইসেন্স দীর্ঘকাল ধরে বাতিল করছে না। এ সুযোগে প্রাইভেট এয়ারলাইন্সসমূহের বকেয়া টাকার পরিমাণ ক্রমান্বয়ে পাহাড়সম হচ্ছে এবং সরকার আর্থিকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।
এছাড়া বেবিচক পাইলট, ফ্লাইং ইঞ্জিনিয়ারদের লাইসেন্স দিয়ে থাকেন। লাইসেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে যোগ্যতা বা দক্ষতার চেয়ে স্বজনপ্রীতি, পছন্দের প্রার্থী, দলীয় বিবেচনা ও টাকার দৌরাত্ম্য বেশি প্রাধান্য পায়। অনেকক্ষেত্রে অসাধু কর্মকর্তারা মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে সংস্থার শর্তাদি পরিপালন না করে প্রাইভেট এয়ারক্রাফটের লাইসেন্স প্রদান করে, যা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এতে যেকোনো সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।   

ফ্লাইট ফ্রিকোয়েন্সি ও শিডিউল অনুমোদন: টাকার বিনিময়ে গ্রাউন্ড হ্যান্ডলারের অনাপত্তি না নিয়েই এয়ারলাইনসগুলোকে নতুন ফ্রিকোয়েন্সি/শিডিউল অনুমোদন দিয়ে থাকে বেবিচক। আর এতে এয়ারলাইনাররা তাদের পছন্দমতো সময়ে শিডিউল পেয়ে থাকে। এতে পিক আওয়ার তথা সন্ধ্যার পর ফ্লাইট ফ্রিকোয়ান্সি এতই বেড়ে যায় যে, বাংলাদেশ বিমান যথাসময়ে গ্রাউন্ড হ্যান্ডল করে পেরে উঠে না। ফলে যাত্রী দুর্ভোগ মারাত্মক আকার ধারণ করে। দুদকের সুপারিশে এসব দুর্নীতিবাজ বা অসদুপায় অবলম্বনকারীদের চিহ্নিত করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, বেবিচকের ১১টি খাতে দুর্নীতি চিহ্নিত করেছে দুদক। সেগুলোরোধেও বেশ কিছু সুপারিশও করেছে দুদক।

সূত্র: পরিবর্তন।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK