demo
Times24.net
জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ৩১ সাংবাদিকের থানায় জিডি
Sunday, 02 Jun 2019 12:11 pm
Times24.net

Times24.net


সহিদুল ইসলাম রেজা, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সন্ত্রাসী হামলায় নির্যাতনের শিকার হয়েছেন সাংবাদিক মোস্তফা মনজু। এ ঘটনার বিচার দাবিতে আন্দোলনরত ৩১ জন সাংবাদিক তাদের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে শনিবার রাতে জামালপুর সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।
জামালপুরে কর্মরত সাংবাদিকরা জানিয়েছেন, জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি চ্যানেল আইয়ের সাংবাদিক হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক এটিএন বাংলার সাংবাদিক লুৎফর রহমানের নেতৃত্বে ৩১ জন সাংবাদিক একযোগে শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় জামালপুর সদর থানায় হাজির হন। তারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালেমুজ্জামানের কাছে তাদের পৃথক পৃথক জিডির কপি জমা দেন। ওসি তাৎক্ষণিক জিডি গ্রহণ করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন।
সাংবাদিকরা তাদের জিডিতে অভিযোগ করে বলেন, গত মঙ্গলবার (২৮ মে) দুপুরে জামালপুর সদর সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় প্রাঙ্গনে জাল কাগজপত্রের মাধ্যমে জমির দলিল নিবন্ধনের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে দলিল লেখক মো. হাবিবুর রহমানের চেম্বারে কথা বলার সময় সাংবাদিক মোস্তফা মনজুরের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হয়। ওই হামলার প্রতিবাদে ও হামলাকারিদের শাস্তির দাবিতে জামালপুরে কর্মরত সাংবাদিকরা আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে। নির্যাতনের শিকার সাংবাদিক মোস্তফা মনজু বাদী হয়ে তার ওপর হামলার মূলহোতা স্ট্যাম্প ভেন্ডার ও জামালপুর পৌরসভার কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ নয়জনকে আসামি করে জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এর দুই দিনের মাথায় মামলাটির আসামিরা  বৃহস্পতিবার আদালত থেকে জামিন নিয়ে সাংবাদিক মোস্তফা মনজুসহ আন্দোলনতরত জামালপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও অন্যান্য সকল সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন। এ ধরনের হুমকিতে সাংবাদিক মোস্তফা মনজুসহ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এবং পরিবার পরিজন নিয়ে চরম উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় রয়েছেন।
এ ব্যাপারে জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান বলেন, মোস্তফা মনজুর ওপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের হুমকির কারণে তিনিসহ আন্দোলনরত সাংবাদিকরা তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে জীবনের চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তাই থানায় গণজিডি দায়ের করে সাংবাদিকদের জীবনের নিরাপত্তা চাওয়া হয়েছে। একই সাথে হুমকিদাতা হাসানুজ্জামান খান রুনু ও তার সহযোগীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছি।অন্যথায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে বৃহত্তর সমাবেশসহ আন্দোলন আরও জোরদার করা হবে বলেও জানান তিনি।