demo
Times24.net
ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভোগান্তি চরমে
Thursday, 30 May 2019 00:10 am
Times24.net

Times24.net


শামীম চৌধুরী, বিশেষ প্রতিনিধি, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা:  ইসলাম ধর্মে মুসলমানদের বড় ধর্মীও উৎসব পবিত্র ঈদ-উল ফিতর। আর সেই উৎসব আর মাত্র কয়েক দিন বাকি। এই পবিত্র ঈদ-উল ফিতর দিনটাকে উৎযাপন করার জন্য মানুষ তাদের আপনজন, বাবা-মা, ভাই, বোন ও অন্যান্য পরিজনদের সঙ্গে কাটানোর জন্য সবার এই ঘরে ফেরার যুদ্ধ। এই ঘরে ফেরাকে কেন্দ্র করে রাজধানির বাসন্ড (গাবতলী,মহাখালি,আব্দুল্লাহপুর, সায়েদাবাদ, গুলিস্তান, যাত্রাবাড়ী), রেল স্টেশন (কমলাপুর, ক্যান্টনমেন্ট, বন্দর স্টেশন, জয়দেব স্টেশন) যাত্রীদের পা রাখার জায়গা নেই। এমনকি ট্রেনের ছাদেও উঠেছে যাত্রীরা, সবাইকেই যেতে হবে ঈদ পালনের জন্য তাদের আপনজনে কাছে,সদরঘাট (লঞ্চঘাট) যেনো যাত্রীদের তিল পরিমান ঠাঁই নেই। এদিকে যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে সরকার বাসটার্মিনাল,লঞ্চঘাট ও রেল স্টেশন গুলোতে যাতে টিকিট কালোবাজার, মলম পাটি বা কোন ধরনে দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য পুলিশ, র‌্যাব, বিডিয়ার ও সাদা পোষাকে পুলিশ মোতায়েন করেছে। ঈদু-উল ফিতর উপলক্ষে আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন,আর কিছু দিন পরে মুসলমানদের পবিত্র ঈদ-উল ফিতর, এই ঈদে ঘর মুখো যাত্রীদের যাতে কোন কষ্ট না হয় সে জন্য সরকারভাবে স্পেশাল বিআরটিসির ব্যবস্থা করা হয়েছে। তিনি বলেন কোন বাস চালক যাত্রী নিয়ে বাস চালানোর সময় ও লঞ্চ,স্টিমারের মাস্টারা যাত্রী নিয়ে স্টিমার চালানোর সময় অন্য চালকদের সাথে প্রতিযোগিতা করবেন না,লঞ্চ,বাস ও ট্রেনের ছাঁদে কোন যাত্রী না উঠানোর জন্য সদয় দৃষ্টি রাখার কথা বলেন। তিনি আরো বলে চারিদিকে প্রষাসনের কড়া তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে, কোথাও কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটলেই নিকটস্থ আইনশৃঙ্খলা বাহিনির নিকট জানান। এদিকে ঈদে ঘরে ফেরা যাত্রীদের উদেশ্যে র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজির আহমেদ বলেন, রাজধানির বাইরে যারা ঈদ উৎযাপন করতে যাচ্ছে তাদের জন্য বাস টার্মিনাল, লঞ্চঘাট, স্টেশগুলোতে র‌্যাবের কড়া নিরাপত্তার ব্যাবস্থা রাখা হয়েছে।তিনি আরো বলেন কোথাও কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটলে সাথে সাথে র‌্যাবকে অবগত করেন। পবিত্র ঈদ-উল ফিতরে পুলিশের মহাপরিচালক ঈদে ঘর মুখো যাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলে, রাজধানি বাস টার্মিনাল, রেল স্টেশন, লঞ্চঘাট সহ বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের চেক পোস্ট বসানো হয়েছে, বিভিন্ন পয়েন্টে সিসিক্যামের বসানো হয়েছে চুরি,ছিনতাই, মলম পাটি দৌরাত্ন্য ঠেকাতে। তিনি যাত্রীদের উদ্দেশ্য আরো বলে, অপরিচিত কারোদেওয়া কোন কিছু খাবেন না,মালামাল নিজ দায়িত্বে রাখুন। প্রত্যেকে সুন্দর ভাবে তাদের প্রিয়জনদের সাথে ঈদ উৎযাপন করে আবার সুন্দর ভাবে ঈদের ছুটি শেষে গন্তব্যস্থানে ফিরে এসে তাদের কর্মব্যস্থতায় যোগদান করতে পারে এবং সেই সাথে দেশবাসিদের পবিত্র ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।