demo
Times24.net
তথ্য গোপনের দায়ে বান্দরবানে ৮ ভারতীয় নাগরিক আটক
Friday, 02 Nov 2018 22:01 pm
Times24.net

Times24.net


টাইমস ২৪ ডটনেট, বান্দরবান থেকে : ভারতীয় নাগরিক মোনালিসা ভট্রাচারিয়া তথ্য গোপন করে পার্বত্য জেলা বান্দরবান ভ্রমনের সময় গোয়েন্দাদের হাতে ধরা পড়েন। শুক্রবার তাকে চিম্বুক পাহাড়ের পর্যটন কেন্দ্র নীলগিরি থেকে আটক করা হয়। পরে তাকে পুলিশে হন্তান্তরের পর বান্দরবানের বাইরে পাঠিয়ে দেয়া হয়।গত এক সপ্তাহে তথ্য গোপন করে বান্দরবান ভ্রমনের সময় এরকম আরো ৭ জন ভারতীয় নাগরিককে আটক করা হয়েছে। আর তথ্য গোপন করে বিদেশীদের ভ্রমন বেড়ে যাওয়ায় প্রশাসন চেকপোস্টগুলোতে তল্লাশিও বাড়িয়েছে। পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার জানান বান্দরবান শহরে প্রবেশ করার জন্য বান্দরবান কেরানীরহাট সড়কের রেইছা ও রাঙ্গামাটি কাপ্তাই সড়কের ডলুপাড়া এলাকায় দুটি চেকপোস্ট রয়েছে। এসব চেকপোস্টে বান্দরবানে আসা বিদেশী নাগরিকদের বিষয়ে তথ্য যাচাই বাছাই করা হয়।তিনি আরো বলেন, প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া কোনো বিদেশী নাগরিক পার্বত্য এলাকায় প্রবেশ করতে পারেননা। কিন্তু ভারতের বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গের লোকজন বাংলা ভাষায় কথা বলায় তাদের বিষয়ে তথ্য যাচাই করা কষ্টকর। অনেক সময়ে তারা ঝামেলা এড়াতে চেকপোস্টগুলোতে তথ্য না দিয়েই পার্বত্য এলাকা ভ্রমন করেন। এ বিষয়টি এখন প্রশাসনের নজরে এসেছে। সব চেকপোস্টগুলোতে এখন বাড়তি সতর্কতা নেয়া হয়েছে। অধিকতর যাচাই বাছাই করা হচ্ছে। তবে গাড়ি তল্লাশি বা তথ্য যাচাই বাছাই করার সময় সাধারন মানুষ যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখা হচ্ছে।
পুলিশ ও গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, গত ২০ অক্টোবর পর্যটন কেন্দ্র নীলগিরি থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের চব্বিশ পরগনার মাজেদুল হক মন্ডল, একই এলাকার নজরুল হক মন্ডল, কলকাতার বিবি ফরিদা, একই এলাকার আসমিফ মন্ডল, আমিনা মন্ডল, মহিউদ্দিন মোল্লা ও সাহিল হোসাইনকে আটক করে সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা সদস্যরা।পরে তাদেরকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয় এবং বান্দরবান জেলার বাইরে পাঠিয়ে দেয়া হয়। তারা বাংলাদেশের কুষ্টিয়া জেলার বাসিন্দা ইমনুর রহমানের সহযোগিতায় তথ্য গোপন করে বান্দরবানে বেড়াতে এসেছিল।
এদিকে শুক্রবার বিকেলে একইস্থান থেকে মোনালিসা ভট্রাচারিয়া নামে আরো একজন ভারতীয় নাগরিককে আটক করা হয়। এই নিয়ে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে তথ্য গোপন করে বান্দরবান ভ্রমনের সময় ৮ জন ভারতীয় নাগরিককে আটক করে নিরাপত্তা বাহিনী।
আর তাই বান্দরবান জেলা শহরের প্রবেশপথের সবকটি চেকপোস্টে তল্লাশি বাড়িয়েছে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা।তবে চেক পোস্টগুলোতে তথ্য যাচাই বাছাই বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ যাত্রীরা হয়রানিতে পড়ছেন বলে অনেকে অভিযোগ করেছেন।
বান্দরবান সদর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম জানান, চেক পোস্টগুলোতে যাত্রীবাহী বাস ও নিজস্ব যানবাহনগুলোসহ সব ধরনের যানবাহনের লোকজনদের তথ্য নেয়া হচ্ছে। সন্দেহভাজনদের বিষয়ে সতর্কতা গ্রহণ করা হচ্ছে যাতে চোখ ফাঁকি দিয়েও তথ্য গোপন করে কোন বিদেশী নাগরিক বান্দরবানে প্রবেশ করতে না পারে।