demo
Times24.net
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট তাইয়েপ রিসেপ এরদোগান-এর অনুসরণ ও অনুকরণীয়
Friday, 15 Dec 2017 00:16 am
Times24.net

Times24.net


আব্দুল হান্নান, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: তাইয়েপ রিসেপ এরদোগান তুরস্ক প্রেডিডেন্ট হিসাবে যেসকল ভ‚মিকা নিচ্ছেন তাতে করে মুসলিম দেশগুলো তার কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা উচিৎ। মুসলমান একমাত্র আল্লাহর দাসত্ব বা গোলামী করবে অন্য কারোও গোলামী করবে না। যার কারণে আজকে মুসলমানের করুন পরিণতি, এর থেকে বেরিয়ে আসার একমাত্র পথ আল্লাহর আদেশ পালন করা হলে কেউ রাষ্ট্রের তাবেদারী বা মোরলিপানা করতে পারবে না, তার প্রমাণ তাইয়েপ রিসেপ এরদোগান প্রমান করে দিয়েছেন, স্বল্প সময়ের ব্যবধানে জাতির মণি কোঠায় পৌছেছেন। যেমন ১৬ জুলাই, ২০১৬ ইং তারিখে সেনাবাহিনীর দখলদারী জনগণ ব্যর্থ করে দেন। তাছাড়া উন্নয়ন, অর্থনৈতিক সাধারণ জনগণের জীবনমান একধাপ এগিয়ে নিয়েছেন। 
এছাড়া ইরানের সফর যেনো দু’দেশের জন্য একটি মাইল ফলক হিসাবে কাজ করবে। সম্প্রতি ৫৭টি ওআইসি সদস্যভ‚ক্ত থাকলেও ৪৫টি দেশ ইসলামী ঐক্য ছোট গঠন করেছে যা সবারই জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে। একমাত্র তাইয়েপ রিসেপ এরদোগান -এর প্রচেষ্টায় উক্ত সমাবেশ ঘটাতে পেরেছেন। তার মতন ব্যক্তি আমাদের জন্য অনুসরণ ও অনুকরণীয় কর্ম পদ্ধতি হিসাবে জাতির সামনে তিনি তুলে ধরেছেন।

বিভিন্ন সূত্র যেসব পত্র-পত্রিকা ফেসবুক, ইন্টারনেট থেকে তার কর্মকান্ড একজন রাষ্ট্রের দায়িত্বশীল ব্যক্তির করণীয় ও বর্জনীয় ভ‚মিকা হওয়ার কি কর্মপন্থা তা তিনি দেখিয়েছেন যার নাম এরদোগান। ইসলামী ঐক্য জোট গঠন করা হয়েছে। তবে এর আলোকে কর্মপন্থা রূপ দান করা হলে এগিয়ে আসবে মুসলিম বিশ্ব। তার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হলে সবারই জন্য বয়ে আনবে কল্যাণ সমৃদ্ধ ও সম্পৃতি। এরদোগান -এর দেশ ছিল ৪০-৫০ বৎসর ধর্মীয় অনুশাসন থেকে বঞ্চিত, ধর্ম নিরপেক্ষ মতবাদ প্রতিষ্ঠিত। সেই মতবাদ একহদিনে শেষ করা যাবে না সময়ের ব্যবধানে উৎখাত হয়ে যাবে। তিনি প্রতিটি স্কুল ও কলেজে মসজিদ নির্মাণের ঘোষণা দেন। এখন তুরস্কের মুসলমান ও অমুসলমানরা এরদোগানের আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে ইসলামের ছায়াতলে প্রবেশ করছে। 

তুরস্ক ছিল অর্থনৈতিক ভাবে খারাপ অবস্থায়। তা তিনি কাটিযে উঠতে পেরেছেন, পাশাপাশি নিজস্ব উৎপাদিত গাড়ী তৈরী করতে সক্ষম হন। উক্ত গাড়ী বাণিজ্যিক ভাবে বিভিন্ন দেশে রপ্তানি করবেন। এরদোগান বলেছেন প্রথম গাড়ীটি তিনি ক্রয় করবেন। তার রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব ১০ বছর, এই ১০ বছরের মধ্যে তুরস্কের জনগণ ভ্যাগ্যের চাকা ঘুরে যাবে। ফলে জনগণের তথ্য প্রযুক্তি, টেকনোলজির মাধ্যমে তাদের ভবিষ্যৎ আর পিছনে তাকাতে হবে না। জনগণ বার বার এরদোগানের প্রত্যাশা করবেন তার মতন লোক বর্তমানে আসবে না বলে অভিজ্ঞ মহল মন্তব্য করেন।