মঙ্গলবার, ১৪ আগস্ট ২০১৮
Friday, 09 Mar, 2018 12:27:54 am
No icon No icon No icon

নারীদিবসের প্রাক্কালে


নারীদিবসের প্রাক্কালে


সংহিতা দেব: নারী দিবসের প্রাক্কালে অশান্ত , বিব্রত, নিপীড়িত, নির্যাতিত নারীকুলের প্রতি আমার বক্তব্য ছিল কিছু । আজকাল "নারীবাদী" বলে চিহ্নিত আমি। তাই আমার দায়িত্ব বর্তায় নারীদের জন্য কিছু করি। হ্যাঁ, আমি নারীবাদীই। চরমপন্থিদের মত বলতে পারবো না নিজেকে মানুষবাদী। নারী হয়ে জন্মেছি, তাই আগে নারীবাদ নিয়ে ভাবি, নারীবাদী হই, নিজেকে পারফেক্ট করি তারপর না হয় মানুষ হব। সামাজিক নিয়ম অনুযায়ী, যদি তুমি পুরুষ তোষণ কর তবে ওরা বলবে তোমায় " আহা! তুমি খাঁটি মানুষ বটে! তুমিই মানুষ-বাদী"। আর যদি তুমি তা না কর বলবে, "নারীবাদী"। আর তবু যদি তুমি নিজ সিদ্ধান্তে অটল হও, তোষামদে না যাও তার সাথে আরো যা জুড়ে দেবে, তা হল... "সাইকো নারীবাদী"..... বড় খাঁটি কথা কিন্তু এটা। এইজন্যই ভালোবাসি পুরুষ তোমায়। তোমায় ভালোবেসে সাইকো হই আমরা কিম্বা সাইকো ছিলাম ভাগ্যিস! তাই তো ভালোবাসি তোমাদের নিখুঁত ভাবে। যা তোমরা পারোনা। আর নারীবাদী? আরে তা তো হবই। আমার প্রথম পরিচয় আমি নারী।

নারীবাদী হওয়ার সুবাদে আমি ১০০% পুরুষ-প্রেমি । হতেই হবে। বোকাপুরুষরা ভাবে আমরা পুরুষ বিরোধী। তা কি করে হয়? নারীবাদী যে, সে তো সম্পুর্ণ এক নারী, প্রকৃতির নিয়ম অনুযায়ী সে পুরুষ প্রেমিকই হবে। আমি নারীবাদী, তাই প্রতিটা পুরুষকে আমার প্রেমিক মনে হয়। আমি খুব গভীর ভাবে তাদের বুঝি, অনুধাবন করি। শোনো নারীকূল, তাই চুপি চুপি বলি কিছু কথা......

এই যে পুরুষগণ, তারা তোমাদের ভালোবাসে আসলে। দেখো স্বপনে তুমি, জাগরণে তুমি, চিন্তায় তুমি, ভাবনপটে তুমি। ঘুম ভেঙে চায়ের কাপে তুমি, সিগারেটের প্রতি ধোঁয়ায় তুমি, রাতে মদের গ্লাসে তুমি, কবিতায় তুমি, গদ্যে তুমি, খেউরে তুমি, খিল্লীতে তুমি, ফেসবুকের প্রতি পোস্টে তুমি, এমন কি প্রতি মন্তব্যেও সেই-ই তুমি , তুমি প্রসঙ্গে বা অপ্রসঙ্গে। তবেই বোঝ নারী কি পরিমাণ ছেয়ে আছো তুমি ☺.... (তারা) ভালো যদি বাসে তবে তুমিই "আদর্শনারী" , মন্দবাসলে তুমিই "রাতপরী"। তাতে কি? ভালোবাসার মতই মন্দবাসা একটা ইভেন্ট মাত্র। আসলে তো পুরুষ নারীময়। তুমি কিন্তু সহজেই বেরিয়ে গেছ সেই পুরুষ থেকে যাকে তুমি দেবতা মনে করতে কখনো, কখনো বা প্রেমিক, কখনো বন্ধু। এগিয়ে গেছো তুমি অনেক কদম। তবু পিছন ফিরে তাকিয়ে দেখো কখনো, যখন তুমি তার হাতের মুঠোয় থাকতে, দিনরাত গুরুত্ব দিতে, তোমায় সম্বোধনে বলত "দেবী", তারপর যদি মুঠো থেকে বেড়িয়ে যাও তখন তুমিই হলে "বারবনিতা"। কষ্ট পাও তো তোমরা? ভাবো অমর্যাদা হল তোমার? ভেবে দেখো গভীর ভাবে, তুমি তো সেই তুমিই আছ, তবু বদল হয়েছে তোমার পরিচিতি , আসলে যে পরিচিতি দিচ্ছে বদল তার ভাবনায় এসেছে। তাতে তোমার কি? তুমি তো জানো সত্যটা , সেদিনও তুমি "দেবী" ছিলে না,আজও তুমি "পতিতা" নও। তুমিই যে "নারী".... তাই কি যায় আসে তাতে তোমার? বুঝতে পারো তো তার ভাবনা জুড়েই তুমি, এই সুখ টুকু নিয়ে নাও শুধু, তুমি যে সুখ-পাখি। কিম্বা তুমি আজন্মের পতিতা। পুরুষ জন্মেই পুরুষ হয়, নারী তুমি কিন্তু জন্মেই হও পতিতা। তুমি জন্মালে বংশের প্রদীপ হওনা। অন্যকে তুমি আলো দেখাওনা। আসলে যে তুমি আস্ত আগুন। তোমায় ক্ষুদ্র প্রদীপ ভাবে না কেন জানো? তুমি জ্বলে উঠলে আলো নয়, ধ্বংস আনবে। তারা খুব জানে সেটা। তোমায় সবার আগে পতিত করে তোমার পুর্ব"পুরুষ" গণ মুখে আগুন পাবে না বলে। আসলে তারাও জানে তুমি ভালোবাসার প্রতীক, তুমি ভালোবাসাই দিতে জানো, আগুন দিতে নয় । তারপর তুমি আকারে-বহরে-গতরে যত বড় হতে থাকো, তত পতিত হতে থাকো সমাজে। কারণ তোমায় পতিতা না করলে তোমায় যে ভোগ করতে পারবে না। ভেবে দেখো তোমার মহানতা, তুমি তাদের ভোগে নিজেকে আহুতী দিতেও একবার ভাবো না। তুমি দুর্বল বলে নয়, তুমি শতগুণ সবল বলেই ভালোবেসে "পতিতা" শব্দ শুনে হেসে উড়িয়ে দাও, সেবাদাসী হয়ে থাকো। তুমি স্নেহ মেখে বুঝে নাও তোমায় পতিতা বলা তাদের নিছক ক্ষোভ মাত্র। হস্তগত করতে পারেনি সহজে যে। ভাবছ কয়েকজন্ম জন্মে তুমি সতী হবে? সে গুড়ে বালি। সতীর সাথে তুলনীয় হবে তুমি "অসতী" সম্ভাষণে ভূষিত হতে। আজ অব্দি একজন সতী কে তুমি চেনো কি? হতে পারো সতী যদি তুমি জহর ব্রত নাও। কিন্তু এটাও কি ভেবে দেখেছ তুমি যে জহর ব্রত নিয়েই জীবত আছ আজন্ম ? প্রতি দিন আগুন দিচ্ছ নিজ অঙ্গে? আমি বলবো, তোমায় যেন দাহ না করে অন্যজন , তুমি দগ্ধ হয়ো না,আগুন হও। তুমি আগুন দাও নিজের শরীরে, জ্বলে ওঠ তুমি, জ্বালাও আপন আলো। পুড়তে থাকো তুমি, পুড়িয়ে দাও নিজের আগুনে অন্যকে। তুমি পুড়ে পোড়াও, অন্য কেউ যেন পোড়াতে সাহস না পায়। আমি অন্তত এই ভাবে চলি। প্রেমিক পারেনি পোড়াতে আমায়, পারেনি নিজপুরুষ - পরপুরুষ কেউই। পোড়ো তুমি রোজ, নিজেই পোড়। ওরা ভাবে পুড়িয়ে ছাই বানাবে তোমায় , তুমি আসলে পুড়ে হচ্ছ "সোনা", সে কথা কেবল তুমিই জানো নারী ♥ তাই ভালোবাসো কেবল পুরুষকে, তারা বুঝুক বা না-বুঝুক। ভালোবেসে যাও। ভালোবেসে ফুরাবে না তুমি দেখো, বিজয়ী হবে শেষ জয়ে

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK