সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯
Wednesday, 24 Jul, 2019 08:15:36 pm
No icon No icon No icon

গুজব প্রতিরোধে আ’লীগের নির্দেশ

//

গুজব প্রতিরোধে আ’লীগের নির্দেশ

সফিকুল ইসলাম, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা : গুজব মোকাবিলায় পাড়া-মহল্লায় সর্তক অবস্থানে থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা কারার পাশাপাশি নিজ নিজ এলাকার নেতাকমীদের নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। দলটির মন্ত্রী-এমপি এবং থানা-ওয়ার্ড সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে গুজব প্রতিরোধে সার্বিকভাবে নিজ নিজ এলাকায় মান্যগণ্য ব্যাক্তিবর্গদের নিয়ে জনসচেতনতামূলক মতবিনিময়-ওঠান বৈঠক করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একইসাথে গুজব সৃষ্টি কারি কুচক্রিমহলকে আইন প্রয়োগ কারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। গতকাল বুধবার পৃথক পৃথক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এ নির্দেশনা দেন।
দলীয় সুত্রে জানা গেছে, গুজব রটিয়ে গণপিটুনির মতো নিমম ও পাশবিক ঘটনা রোধে সরকার কঠোর অবস্থানে আছে। ইতিমধ্যে বর্তমান সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজি ও র‌্যাবপ্রধানসহ সংশ্লিষ্টরা এসব বিষয় প্রতিরোধে যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছেন। এছাড়াও গুজব-অপপ্রচার বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে সরকারের মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, থানা-ওয়ার্ড এবং ইউনিটির আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নিজ নিজ এলাকায় সভা সমাবেশের মাধ্যমে জনসচেতনতা বাড়াতে দলীয়ভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সংসদের হুইপের মাধ্যমে সংসদ সদস্যদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে একটি সুত্র নিশ্চিত করেছে।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ছেলেধরা সংক্রান্ত গুজবের কারণে গণপিটুনি ও প্রাণহানির ঘটনার পেছনে কোনো অসৎ উদ্দেশ্য আছে কিনা সরকার তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তিনি বলেন, ছেলেধরা সংক্রান্ত গুজবে ইতোমধ্যে কয়েকজনের প্রাণহানি ঘটেছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক এবং মর্মান্তিক। এসব ঘটনার পেছনে কোনো চক্রান্ত বা অসৎ উদ্দেশ্য রয়েছে কিনা তা সরকার গভীরভাবে খতিয়ে দেখছে। ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত প্রত্যেককে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। বুধবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, অপরাধী প্রত্যেককে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়ার অধিকার কারোর নেই। এটা অপরাধ। কোনো অপপ্রচার বা গুজবে কান না দিতে জনগণকে আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, গুজব রটিয়ে গণপিটুনির মতো ঘটনা রোধে সরকার কঠোর অবস্থানে আছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইজিসহ সংশ্লিষ্টরা এসব বিষয় প্রতিরোধে যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছেন। তাছাড়া গুজব এবং অপপ্রচার বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে সরকারের মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, দলীয় নেতাকর্মীদের নিজ নিজ এলাকায় সভা সমাবেশের মাধ্যমে জনসচেতনতা বাড়াতে দলীয়ভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সংসদের হুইপের মাধ্যমে সংসদ সদস্যদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।
অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে গুজব ছড়িয়ে সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র বানানোর অপচেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ করেছেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, যারা এ ধরনের গুজব সৃষ্টি এবং প্রচারের সাথে জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বুধবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন। কৃষিমন্ত্রী বলেন, যারা নানা রকম গুজব ছড়িয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চাইছেন, তারা সফল হবেন না। আমরা মানবতায় বিশ্বাস করি, ধর্মান্ধতায় নয়। এখানে ধর্মান্ধতার কোনো স্থান নেই। যারা ধর্মকে পুঁজি করে জঙ্গিদের মতো গুজব সৃষ্টি ও দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছেন, তাদের আমরা কঠোরভাবে দমন করবো। গুজব সৃষ্টিকারীরা সফল হবেন না।   
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, দেশে চলমান গুজব প্রতিরোধে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, পদ্মা সেতুতে শিশু বলি দিতে হবে, এমন গুজব থেকেই ছেলেধরা আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। এসব গুজব প্রতিরোধে দলের (আওয়ামী লীগের) নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বুধবার সচিবালয়ে তার নিজ দফতরে গুজব প্রতিরোধ-সংক্রান্ত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, গত কয়েকদিন ধরে সারা বাংলাদেশে ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে অনেক নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। এগুলো সবগুলোই হত্যাকাণ্ড। যারা এ কাজ করেছে, তারা সবাই হত্যা মামলার আসামি। সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। একইসাথে এ ধরনের গুজব যেন না ছড়ায়, সে জন্য নানাবিধ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।
এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন বলেন, কাউকে সন্দেহ হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কিংবা সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের সহায়তা নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে এ ক্ষেত্রে কোনো প্রকার গুজবে কান না দিতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
এদিকে গত দুইদিন যাবত গুজব প্রতিরোধে স্কুল কলেজের সামনে লিফলেট বিতরণ করেছেন বঙ্গবন্ধু জয়বাংলা লীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাউল করীম চৌধুরী বাবুল। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার সকালে নটরডেম বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে ছাত্র ও পথচারিদের মাঝে গুজববিরোধী সর্তকতামুলক লিফলেট বিতরন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি আহসানউল্লাহ মনি ও প্রেসিডিয়াম সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা ইউনুস আকবর ও আবদুল মজিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির প্রমুখ। এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু জয়বাংলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাউল করীম চৌধুরী বাবুল বলেন,  আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী দেশকে যখন বহি:বিশ্বে একটি উন্নয়নশীল ও রোল মর্ডেল হিসেবে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, ঠিক সেই মুহুর্তে কুচক্রীমহল এই উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে দেশজুড়ে ছেলেধরাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নানাভাবে গুজব সৃষ্টি করছে। এতে গত কয়েক মাসে ৩৪ জন ব্যক্তি নিহত ও শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে। যা রাষ্ট্র ও সমাজের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক। তাই নিজ উদ্যোগে আমরা রাস্তায় নেমেছি জনগনকে সচেতন করতে। আর ওয়ারী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি চৌধুরী আশিকুর রহমান লাভলু বলেন, ছেলেধরাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কতিপয় ফেসবুক আইডি, পেইজ, গ্রুপ থেকে বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দিয়ে সাধারণ নাগরিকদের মনে উদ্বেগের সৃষ্টি করছে অসাধু ব্যক্তিরা। এদের চিহিৃত করতে হবে এবং কেউ যাতে কোনো ধরনের গুজবে কান না দেয় সেই বিষয়গুলো তুলে ধরা হচ্ছে। এদিকে কেন্দ্রের নিদেশনার পরপর যাত্রাবাড়ি থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনর রশীদ মুন্নার নেতৃত্বে এক গুজববিরোধী র‌্যালী বের হয়েছে। এতে ৪৮ নং ওয়ার্ড কমিশনার আবুল কালাম অনু, যাত্রাবাড়ি থানা আওয়ামী লীগের নেতা সাঈদ মিলনসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK