বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯
Sunday, 04 Aug, 2019 12:11:37 am
No icon No icon No icon

জন্মদিনেই বাড়ি ফেরার পথে ১৯ বছরের যুবতীধর্ষিত

//

জন্মদিনেই বাড়ি ফেরার পথে ১৯ বছরের যুবতীধর্ষিত


টাইমস ২৪ ডটনেট : কান পাতলে এখনও নির্ভয়ার কান্নার আওয়াজ দেশের প্রতিটি আনাচ কানাচ থেকে প্রতিফলিত হয়ে ওঠে। ২০১২ সালের চরম পৈশাচিক অত্যাচারের স্বীকার হতে হয়েছিল ওই তুরণীকে। গণধর্ষণ করে খুনের অভিযোগে ফাঁসির সাজা শোনান হয় ধর্ষণকারীদের। যদিও সেই রায়ে শোনার আগেই মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়াইয়ে হার মানতে হয়েছিল অসহায় মেয়েটিকে। আদালতের কড়া নির্দেশের পরও সজাগ হয়নি প্রশাসন, চরমতম শাস্তির নিদানের পরও প্রাণে ভয় ঢোকেনি ধর্ষণ কারীদের। কমানো যায়নি ধর্ষণ ও গনধর্ষণের মতো ঘটনা। তার মধ্যে অন্যতম বিরল নৃশংতার ঘটে গেল বাণিজ্য নগরীর রাস্তায়। ৭জুলাই মুম্বই চেম্বুরের বাসিন্দা এক তরুণীকে তাঁর জন্মদিনের দিন গণধর্ষণ করে অপরিচিত চার যুবক।
জানা গেছে, ওইদিন রাতে ১৯ বছরের ওই নির্যাতিতা তাঁর জন্মদিনের পার্টিতে যোগ দেওয়ার জন্য। খানিক তাড়াহুড়ো করেই বাড়ির ফিরছিলেন। চেম্বুরের পথেই চার পাশবিকের হাতে অসহায় ভাবে নির্যাতিত ও গণধর্ষিত হয় ওই তুরুণী। পুলিশ সূত্রের খবর, ঘটনার স্থল থেকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তরুণীকে। সেখানেই এতদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। পরিবারের তরফে বিষয়টি প্রকাশ্যে আনতে না চায়নি। তরুণীর শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকায় বিষয়টি সামনে আসে। পুলিশের তরফে জানান হয় এই ঘটনায় ‘জিরো এফাআইআর’ দায়ের করে পুলিশ। যার ফলে নির্দিষ্ট কোন থানার তত্ত্বাবধানে নয় যেকোন থানার আওতায় এই ঘটনার তদন্ত করবে পুলিশ। তদন্তে নেমে আপাতত চারজন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে জানান হয়, দিন দিন তরণীর শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটছে। যৌনাঙ্গ থেকে ক্রমাগত রক্ত ক্ষরণ হয়েই চলেছে। একই সঙ্গে ভাষা শক্তিও লোপ পেয়েছে তরুণীর। প্যারালাইসড হয়ে গিয়েছে তাঁর পা দুটি। ওরাঙ্গাবাদের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে বলা হয় তরুণীর অবস্থা এখনও স্থিতিশীল গভীর ট্রমায় রয়েছেন তরুণী। দেহের বিভিন্ন অঙ্গে নৃশংস ভাবে অত্যাচারের ফলে গভীর ক্ষতর সৃষ্টি হয়েছে। নির্যাতিতার বাবা থর থর কন্ঠে বলেন ‘মেয়ের দিকে তাকাতে পারছিনা, ক্রমাগত কেঁদেই চলেছে। ধীরে ধীরে কোমায় চলে যাচ্ছে আমার মেয়ে। তাঁর সারা শরীর প্যারালাইসড হয়ে গিয়েছে। এমন কি চিনতে ও পারছেনা কাউকে। এই ঘটনার পর তড়িঘড়ি তদন্তে নেমে চারজন কালপ্রিটকে সনাক্ত করে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
সূত্র: মহানগর 24x7 নিউজ।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK