বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Sunday, 14 Jul, 2019 12:12:42 pm
No icon No icon No icon

পাকিস্তান হঠকারী আচরণ করলে কঠোর জবাব দেয়া হবে: ভারতীয় সেনাপ্রধান

//

পাকিস্তান হঠকারী আচরণ করলে কঠোর জবাব দেয়া হবে: ভারতীয় সেনাপ্রধান


টাইমস ২৪ ডটনেট, আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ছায়াযুদ্ধ, রাষ্ট্রীয় মদতপুষ্ট সন্ত্রাস ও অনুপ্রবেশের মাধ্যমে বারবার হঠকারী আচরণ করছে। এবার এ ধরনের যে কোনও হঠকারিতার পাল্টা উপযু্ক্ত জবাব পাবে। এনিয়ে কোনও সংশয় নেই। কারগিল যুদ্ধের ২০ তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে আজ (শনিবার)সেন্টার অব ল্যান্ড ওয়ারফেয়ার স্টাডিজ আয়োজিত সেমিনারে বক্তব্য রাখার সময় তিনি ওই মন্তব্য করেন।জেনারেল রাওয়াত বলেন, ‘ভবিষ্যতের লড়াই-সংঘাত-সংঘর্ষ হবে আরও বেশি হিংসাত্মক ও অপ্রত্যাশিত, যা নিয়ে আগাম কোনও ভবিষ্যদ্বাণী করা যাবে না। প্রযুক্তি, সাইবার গোয়েন্দাগিরির বড় ভূমিকা থাকবে এবং সেখানে ভারতীয় সেনাবাহিনী সাধারণ মানুষের কী হবে, সেটা মাথায় রাখবে না।’তিনি বলেন, জওয়ানরা আমাদের প্রকৃত সম্পদ। ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনী আমাদের এলাকাগত সংহতি ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রস্তুত এবং দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আগামীদিনের লড়াইয়ের প্রধান চালিকাশক্তি হয়ে উঠেছে প্রযুক্তি। রাষ্ট্র বহির্ভূত শক্তিগুলোর উত্থান ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অন্যান্য অপ্রচলিত পদ্ধতি ব্যবহারের প্রবণতা নতুন স্বাভাবিক রীতি হয়ে উঠছে।

১৯৯৯ সালের মে-জুন মাসে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কারগিল যুদ্ধ হয়। সেসময় পাকিস্তানি সেনারা নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছিল। পাকবাহিনী টোলোলিং হাইটস, টাইগার হিল পয়েন্ট ৪৮৭৫ ( বাটরা টপ) সহ কৌশলগত দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন শৃঙ্গ দখল করে নেয়। ওই ঘটনার পাল্টা জবাবে ভারতীয় সেনাবাহিনী ‘অপারেশন বিজয়’ অভিযানে নামে। অবশেষে তীব্র সংঘর্ষের পরে পাকবাহিনীকে হঠিয়ে ভারতীয় বাহিনী নিজ এলাকা পুনর্দখল করতে সমর্থ হয়। প্রায় তিন মাস ধরে চলা ভয়াবহ ওই যুদ্ধে ভারতীয় বাহিনীর কমপক্ষে ৫২৭ সেনা নিহত ও ১৩৬৩ জন আহত হয়।

সূত্র: পার্সটুডে।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK