শনিবার, ১৫ জুন ২০১৯
Saturday, 08 Jun, 2019 04:49:18 pm
No icon No icon No icon

পুলিশের বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীদের তুলে আনার অভিযোগে উত্তপ্ত লাভপুর!

//

পুলিশের বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীদের তুলে আনার অভিযোগে উত্তপ্ত লাভপুর!


টাইমস ২৪ ডটনেট, সিউড়ি: আবারও উত্তপ্ত বীরভূমের লাভপুর। যেখানকার বিধায়ক মণিরুল ইসলাম সম্প্রতি শাসক শিবির ছেড়ে যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। সেই লাভপুরেই লোকসভা নির্বাচনের আগে এক বিজেপি নেতার মেয়ে নিখোঁজ হওয়ার কাণ্ডে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল গোটা এলাকা। বিজেপি কর্মীরা সেই সময়ও রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন। এমনকি ওই সময়ে কলকাতা থেকে লাভপুরে ফেরার পথে বিজেপির বাহিনীর আহতে আক্রান্ত হয়েছিলেন খোদ মণিরুল ইসলামও। তার গাড়ি সেদিন ভাঙচুর হওয়া ছাড়াও বিক্ষোভকারীরা মণিরুল ও তার ছেলেকে তাড়াও করেছিল। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে সেদিন মণিরুল ও তার ছেলে দৌড়ে কোনরকমে আশ্রয় নিয়েছিলেন লাভপুর থানার অন্দরে। তারপর সেই থানা ঘিরে চলেছিল বিক্ষোভকারীদের পাথরবৃষ্টি। সেদিন পুলিশ বাধ্য হয়েছিল লাঠিচার্জ করে, কমব্যাট ফোর্স নামিয়ে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে। শনিবার সকাল থেকেই সেই পুরানো ছবিটাই আবার ফিরে এল লাভপুরের বুকে। শুক্রবার রাতে বিনা কারনে দুই বিজেপির কর্মীকে থানায় তুলে আনার অভিযোগ উঠেছে লাভপুর থানার পুলিশের বিরুদ্ধে। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ। বিজেপি কর্মীরা কিন্তু এদিন সাফ জানিয়ে দিয়েছে নিখোঁজ দুই কর্মীর সন্ধান না পাওয়া পর্যন্ত অবরোধ বিক্ষোভ চলবে লাভপুরে।
জানা গিয়েছে, লাভপুরের গঙ্গারামপুর গ্রামের সানাউল্লা আলম ও আলি আহমেদ হোসেন নামে যুবককে শুক্রবার রাতে বিনা কারনে পুলিস তুলে এনেছে বলে অভিযোগ। এলাকায় তারা বিজেপি করে বলে জানা গেছে। সেই কারনেই পুলিস তাদের হেনস্থা করছে বলে অভিযোগ তুলে শনিবার সকাল থেকে পথ অবরোধে সামিল হয়েছে বিজেপি কর্মীরা। লাভপুর-বোলপুর রাস্তায় তাঁতিবাধি মোড়ের কাছে রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে পুলিসী অত্যাচারের প্রতিবাদে পথে নেমেছে বিজেপি। পথ অবরোধের ফলে রাজ্য সড়কে দাঁড়িয়ে পড়েছে বহু যানবাহন। চরম বিপর্যস্ত যান চলাচল। বিপাকে পড়েছেন বহু মানুষ।যদিও পুলিসের দাবি কাউকে আটক করা হয় নি। বিজেপি কর্মীরা পালটা দাবি করেছে, যতক্ষন না দুজনকে খুঁজে পাওয়া যাবে ততক্ষন অবরোধ চলবে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ইতিমধ্যেই এলাকায় র‍্যাফ, কমব্যাট ফোর্সসহ বিশাল পুলিস বাহিনী নামিয়ে দিয়েছে জেলা প্রশাসন।তবে এই ঘটনার সঙ্গে কিছুটা হলেও জুড়ে গিয়েছে জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের নাম। কারন লোকসভা নির্বাচনের পরে বেশ কিছুদিন চুপচাপ থাকার পরে শুক্রবার লাভপুরের পাশেই থাকা সাঁইথিয়ে দলের এক সভা থেকে ফের স্বমহিমায় ফিরেছেন দিদির কেষ্ট। ওই সভা থেকে তিনি বিরোধীদের ফের তার নিজের মত স্বভাবে আক্রমণ হানেন। বিরোধীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেছিলেন, ‘কে এলো, আর কে গেল, আমরা চিন্তা করি না। আমরা আছি, মমতা ব্যানার্জি আছে, তৃণমূল কংগ্রেস আছে। আমরা উন্নয়ন করেছি, ওরা উন্নয়ন করে নাই। যদি কেউ ভাবেন ঝামেলা করবো, মস্তানি করবো, আমরা রাজি আছি। সব সময় রাজি আছি। আপনারা যা করবেন, আমরা তার চারগুন করবো। যদি ভাবেন তৃণমূল কংগ্রেস হয়ে ঘরে বসে আছে, তাহলে মূর্খের মতো ভাবছেন। আপনি ছড়ি দেখালে, আমরা ডান্ডা দেখাবো। সিপিএমের হার্মাদ, তোমরা বিজেপিতে ঢুকে খুব মজা করছো। এমন পেটানো পেটাবো শিক্ষা দিয়ে দেব।’ অনুব্রত মণ্ডলের এই বক্তব্যের পরই লাভপুর থেকে বিজেপির দুই কর্মী নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার ঘটনাকে এখন আর তাই কাকতালীয় ভাবে দেখছে না জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের দাবি, অনুব্রত’র আঙ্গুলীহেলনেই পুলিশ বিজেপি কর্মীদের শায়েস্তা করতে ওই দুই বিজেপি কর্মীকে তুলে এনেছে।
সূত্র: মহানগর নিউজ।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK