সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
Friday, 17 Aug, 2018 09:13:32 pm
No icon No icon No icon

বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে রাজধানীবাসী


বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে রাজধানীবাসী


টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: ঈদ উপলক্ষ্য বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে রাজধানীবাসী। বাস, ট্রেন অথবা লঞ্চে করে যার যার সুবিধামত ঢাকা ছাড়ছে মানুষ। বিশেষ করে রাস্তার যানজট আর বাড়তি দূর্ভোগ এড়াতেই বাড়ি ফিরছেন তারা। তাই রাজধানীর সায়েদাবাদ, মহাখালি আর গাবতলী বাস টার্মিনালে ঘরে ফেরা মানুষের উপস্থিতি দেখা গেছে। রাজধানীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ছুটি হয়ে যাওয়ায় অনেকেই পরিবার পরিজনকে আগেই বাড়ি পাঠিয়ে দিচ্ছেন। এদিকে কমলাপুর রেলষ্টেশনে ঘরে ফেরা মানুষের চাপ ছিল তুলনামূলক কম। শুক্রবার ভোর ৫টায় ঈদের প্রথম ট্রেন ‘বলাকা কমিউটার’ কমলাপুর রেলস্টেশন ছেড়ে যায়। যারা ফিরছেন তাদের সবাই স্বস্তিতেই ঘরে ফিরতে দেখা গেছে।  বিশেষ করে আজ শুক্রবারে ট্রেনের ছাদে কোন যাত্রীকে দেখা যায়নি। সিডিউল বিপর্যয় ছাড়াই কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে ছেড়ে গেছে প্রায় প্রতিটি ট্রেন। আজ ৬৬টি ট্রেন ঢাকা থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। এর মধ্যে ৩১টি আন্তঃনগর এবং বাকিগুলো লোকাল ও মেইল সার্ভিস। ইতোমধ্যে যথা সময়ে ছয়টি ট্রেন কমলাপুর ছেড়ে গেছে। বাকিগুলোও যথা সময়ে ছেড়ে যাবে বলে জানান স্টেশন মাস্টার।
অন্যদিকে বিনা টিকিটে কমলাপুর স্টেশনের ভেতরে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। এছাড়া ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে স্টেশনে রয়েছে র‌্যাব, পুলিশ, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী, গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যসহ আনসার সদস্যরা। পাশাপাশি যাত্রীদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করছেন রোভার স্কাউট ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সদস্যরা।
এদিকে, গাজীপুরের হোতাপাড়ায় বকেয়া বেতনের দাবিতে পোশাক শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করায় যান চলাচল ব্যহত হয়েছে। শুক্রবার সকালে, বকেয়া বেতনের দাবিতে এলিগেন্স গার্মেন্টস শ্রমিকরা রাস্তায় নেমে আসে। এতে টঙ্গি থেকে হোতাপাড়া পর্যন্ত প্রায় ৩০ কিলোমিটার তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এছাড়া গাজীপুরের ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা ও এর আশপাশের এলাকায়ও যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। 
হাইওয়ে পুলিশ জানায়, সকালে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ওভারব্রিজের ওপর একটি ট্রাক বিকল হয়ে পড়ায় যানজটের শুরু হয়। যানজট কালিয়াকৈর খারাজোরা এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে। এতে যাত্রীরা ভোগান্তি পড়েছেন। এছাড়া, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী থেকে চৌরাস্তা পর্যন্ত প্রায় ১২ কিলোমিটার রাস্তা সচল থাকলেও, ভোগড়া বাইপাসের পর বিআরটিএ'র কাজ চলায় মহাসড়কের বেশ কয়েকটি স্থানে গাড়ি এক লেনে চলছে। ফলে এই এলাকাতে থেমে থেমে গাড়ি চলছে। এদিকে, তীব্র স্রোতের কারণে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে ফেরি চলাচল ব্যহত হচ্ছে। এতে যানবাহনের দীর্ঘ সারি তৈরি হয়েছে।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK