বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯
Thursday, 08 Aug, 2019 04:34:54 pm
No icon No icon No icon
বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৯তম জন্মবার্ষিকী পালিত

বঙ্গমাতা পর্দার অন্তরালে থাকা সাহসী এক নারী : কাদের

//

বঙ্গমাতা পর্দার অন্তরালে থাকা সাহসী এক নারী : কাদের

টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা : বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৯তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী এবারও জাতীয়ভাবে উদযাপিত হয়েছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় দিবসটি জাতীয়ভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।  বৃহস্পতিবার সকালে বনানী কবরস্থানে তাঁর সমাধিতে পুষ্পার্ঘ্য অপর্ণের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয় । রাজধানীর বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত তাঁর সমাধিতে বৃহস্পতিবার সকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীরা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়াও সেখানে তাঁর রুহের মাগফেরাত কামনা করে কোরানখানি, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় । এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে বঙ্গমাতার আত্মার শান্তি এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মীনি বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পর্দার অন্তরালে থাকা সাহসী এক নারী। গতকাল বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর বনানীতে তার কবরস্থানে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধু দীর্ঘ ১২ বছরের জেল জীবনে তিনি একদিকে ঘর অন্যদিকে দল সামলেছেন। কিন্তু সামনে না এসে থেকেছেন সবসময় পর্দার অন্তরালে। আজ আমরা বাংলার ইতিহাসের বীর এই নারীর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করতে এসেছি। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসের অসীম সাহসী এক নারী বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের আজ জন্মদিন। আগস্টে তার জন্ম আগস্টেই তার রক্তাক্ত বিদায়। আনন্দ-বেদনা হাসি-কান্নার মিশেলে আজ আমরা তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সমাধিস্থলে এসেছি। তিনি বলেন, তিনি শুধু বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী না, ছিলেন সহকর্মী, বন্ধু। শেখ মুজিবুর রহমানের দীর্ঘ এক যুগের জেল জীবনে একদিকে যেমন পরিবারকে সামলেছেন ঠিক তেমনি সে সময়ে দলকে সামলানোর দায়িত্বও ছিল তার কাঁধে। তিনি কখনো সামনে আসেননি, পর্দার আড়ালে থেকেই তার কাজ সম্পাদন করে গেছেন। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদনের পরে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণ, আওয়ামী যুবলীগ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ, যুব মহিলা লীগ, কৃষক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ ও তাঁতীলীগ,বঙ্গবন্ধু জয়বাংলা লীগ বঙ্গমাতার সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। এছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন বঙ্গমাতার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা (রেনু) ৮৯ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মিলাদ মাহফিল এবং গরীব অসহায় এতিম-দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরন করেছেন  বঙ্গবন্ধু জয়বাংলা লীগ। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় রাজধানীর কমলাপুর সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাউল করীম চৌধুরী বাবুল এর নেতৃত্বে এই আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি আহসান উল্লাহ মনি, প্রেসিডিয়াম সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউনুস আকবর ও আবদুল মজিদ,সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর কবির,  কার্যনির্বাহী সদস্য মো. রেজাউল করীম সাগর সহ ঢাকা মহানগর ও কেন্দ্রীয় কমিটি নেতৃবৃন্দ। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৯ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এ সময় তিনি বলেন, স্বাধীনতার ইতিহাসে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। স্পিকার বলেন, কোন পদ পদবীর অধিকারী না হয়েও বঙ্গমাতা ছিলেন নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের এক অনন্য প্রতীক। তিনি ছিলেন এক অসামান্য দৃঢ়তা, আত্মপ্রত্যয়, সাহস এবং অসাধারণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী। এসময় স্পিকার বঙ্গমাতার জীবনের বিভিন্ন ঘটনা বিশ্লেষণ করে তাঁর আদর্শ থেকে শিক্ষা গ্রহণের জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান। অনুষ্ঠানে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক মমতাজ বেগম এডভোকেট। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট তারানা হালিম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার। অনুষ্ঠানে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর জীবন ও কর্মের উপর নির্মিত প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

 

 

 

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK