বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯
Wednesday, 17 Jul, 2019 08:13:42 pm
No icon No icon No icon

বাংলাদেশীদের জন্যে মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার খুলছে

//

বাংলাদেশীদের জন্যে মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার খুলছে

টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠাতে (কলিং ভিসা) সিন্ডিকেট করে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে বাংলাদেশীদের জন্য বন্ধ হয়ে যাওয়া শ্রমবাজার আবারো চালু হচ্ছে। ​মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মালয়েশিয়ার মানব সম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসেগারান এমনটি জানিয়েছেন। বিগত সরকারের আমলে (এসপিপি) ১০ এজেন্টের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেওয়া হতো। মাহাথির মোহাম্মদের সরকার ক্ষমতায় আসার পর গত বছরের ১লা সেপ্টেম্বরে কলিং ভিসা স্থগিত ঘোষণা করে। এতে করে বিপাকে পড়ে বাংলাদেশী কর্মীরা। শ্রমিক পাঠাতে জন প্রতি ৪ লক্ষ টাকা করে নেওয়া হতো। একজন শ্রমিক রপ্তানিতে ব্যাপক অর্থ নেওয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেওয়ার উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।  
কুলাসেগারন আরো বলেন, ব্যাপক অর্থ খরচ করে এদেশে এসে কাঙ্ক্ষিত বেতন না পেয়ে তারা হতাশায় নিমজ্জিত হয়। এক পর্যায়ে তারা বেশি বেতনের আশায় অবৈধ হয়ে পড়ে। আমরা থ্রিডি সেক্টরে জন্য শ্রমিক নিতে পারি। বাংলাদেশকে আরো স্বচ্ছ হবে, যাতে শ্রমিক রপ্তানি কোন প্রকারে প্রতারণা না হয়। তিনি আরো বলেন, মালয়েশিয়ায় থ্রিডি সেক্টরে ৪ লক্ষ মতো বাংলাদেশি কর্মরত রয়েছে। এর মধ্যে শিল্প কারখানা ও  নির্মান খাতে অধিকাংশ শ্রমিক কাজ করছে। শ্রমিকের অভাবে মালয়েশিয়া শিল্প কারকানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। এবং বিদেশে পন্য রপ্তানি কমে যাচ্ছে তাই আমরা পন্য উৎপাদন ঠিক রেখে রপ্তানি স্বাভাবিক করতে চাই।   তবে অবৈধ অভিবাসীদের ব্যাপারে কোন মন্তব্য করেনি মানবসম্পদ মন্ত্রী।
উল্লেখ্য,  দেশের বাহিরে ২য় বৃহত্তম শ্রমবাজার হচ্ছে এশিয়ার ইউরোপ খ্যাত মালয়েশিয়া। এখানে সরকারি হিসাব মতে ৫ লক্ষের বেশি বাংলাদেশী বৈধ শ্রমিক কাজ করছে এবং অবৈধ হিসেবে আছে কয়েক লক্ষ বাংলাদেশী শ্রমিক। মালয়েশিয়ায় বিদেশি শ্রমিকের সংখ্যায় বাংলাদেশ ২য় স্থানে এবং ইন্দোনেশিয়া প্রথম স্থানে অবস্থান করছে। 

 

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK