বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯
Saturday, 12 Jan, 2019 08:28:41 pm
No icon No icon No icon

গার্মেন্ট শ্রমিকদের বিক্ষোভ, কারখানায় ছুটি

//

গার্মেন্ট শ্রমিকদের বিক্ষোভ, কারখানায় ছুটি


কামরুল ইসলাম, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: বেতন কাঠামোতে বৈষম্য দূর করাসহ বিভিন্ন দাবিতে ষষ্ঠদিনের মতো আজও রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছে তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকরা। শনিবার সকাল থেকে রাজধানীর মিরপুর, শেওড়াপাড়া, টোলারবাগসহ বিভিন্ন স্থানে পোশাক শ্রমিকরা সড়কে বিক্ষোভ করছে। গত কয়েকদিনের মতো আজ শনিবার সকালে তারা বিক্ষোভ করে কারখানা থেকে বের হয়ে আসে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ন্যূনতম বেতন বাস্তবায়ন ও বৈষম্য দূর করার দাবিতে মিরপুর ১৪ নম্বর সড়ক অবরোধ করে শ্রমিকরা। এতে সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দুর্ভোগে পড়ে যাত্রীরা। মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজের সামনে ও টোলারবাগেও সকালে বিক্ষোভ করেছে শ্রমিকরা। তারা রাস্তা অবরোধ করে ও গাড়ি ভাঙচুর করেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা অভিযোগ করেছে।
তবে মিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দাদন ফকির দুপুরে বলেন, ‘শ্রমিকরা সড়কে বিক্ষোভ করছে। তাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ সহযোগিতা করবে। তবে কেউ নাশকতার চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এদিকে মিরপুরের শেওড়াপাড়াতেও বিক্ষোভ করছে শ্রমিকরা। এদিকে সাভারের আশুলিয়াতে বিক্ষোভরত শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পথচারীসহ ১০ জন আহত হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
দক্ষিণ খান ও উত্তর খান থানা এলাকার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা জানান, এসব এলাকায় শ্রমিকরা রাস্তায় বিক্ষোভ করছে না। তবে কয়েকটি কারখানার কাজ বন্ধ রয়েছে।
ভাষানটেকের তামান্না গার্মেন্টসের শ্রমিকরা সকালে সড়কে নেমে বিক্ষোভ শুরু করে। এ বিষয়ে ভাষানটেক থানার ওসি মুন্সি সাব্বির আহমেদ দুপুরে বলেন, শ্রমিকরা রাস্তা বন্ধ করার চেষ্টা করছে। তাদের বোঝানো হচ্ছে। নাশকতা করলে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। 
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কয়েকটি পোশাক কারখানার শ্রমিক রাস্তায় নামে। এতে ওই রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দ্য ফাইনারি লিমিটেড, অ্যাপারেল এক্সপোর্ট লিমিটেড, ডেভিলন, আহম্মেদ ফ্যাশনস ও গোল্ডেন গার্মেন্টস নামে পাঁচটি পোশাক কারখানা রয়েছে ওই এলাকায়।
এরই মধ্যে অভিযোগ উঠেছে, দ্য ফাইনারি লিমিটেডের আইরন ম্যান মিল্টন ও অন্য আরেক শ্রমিককে মারধর করা হয়েছে। অভিযোগের সত্যতার বিষয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের কারো সঙ্গে কথা বলা যায়নি। শ্রমিক বিক্ষোভে সব কারাখানাই ছুটি ঘোষণা করা হয়। এদিকে শ্রমিকদের বাধা না মেনে কয়েকটি মোটরসাইকেল যাওয়ার চেষ্টা করলে চালককে মারধর করা হয় এবং বাইকটি ভাঙচুর করা হয়। এ ছাড়া একটি প্রাইভেটকারও ভাঙচুর করা হয়।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK