মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯

লেখক : মো: জাহাঙ্গীর হোসেন (সাবেক সেনা কর্মকর্তা) মনের দুয়ার রাখতে পারি না রে বন্ধ রাখতে পারি না তালা দিয়া মন ভ্রমরা ফুলের আসে থাকে দেখে কেবলি চাইয়া চাইয়া।

চোখের সামনে কত ভ্রমররে দেহি দেহি কত

লেখক : মো: জাহাঙ্গীর হোসেন (সাবেক সেনা কর্মকর্তা) দিন যে আমার কাঁটে না রে রাত্রি হয় না ভোর মনো আকাশে তারা নক্ষত্রের আনাগোনা সূর্যের আলোতে হতে পারি না বিভোর।

রাত্রি নিশীথের ঝি ঝি পোকার ডাক সদা

কোহিনূর আক্তার তুমি কে ?  রহস্যের বেড়া জালে বোধহীন উদাস  মনে ভাবুক এ দুনিয়ায় কি সুখের বাসর সাজিয়েছো ! চিত্তে তোমার অনাদরের দাহ ,তা কখনো ছোট্ট থার্মোমিটারে মেপে দেখেছো ?

ছোট্ট শালিক বনে নির্বাসিত নিজেকে

কোহিনূর আক্তার সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে , মনটা মানছে না আমার কথা  সোফা থেকে উঠতে ফোনটা পড়ে একটা পাশ ভেঙে গেল । তাই একটু হাসি উঁকি দিলো বাকা ঠোঁটে  আমার জীবনটাই তো ভেঙে

লেখক : মো: জাহাঙ্গীর হোসেন (সাবেক সেনা কর্মকর্তা) কান্দে আমার মন রে বন্ধু কান্দে আমার প্রাণ তুই বিহনে সোনার মর্মে ব্যথা ব্যথায় ব্যথায় যায় জান।

প্রাণে আমার বসন্ত বাতাস অঙ্গে উথাল ঢেউ হেমন্তের বাতাস নিয়া মনের মানুষ

লেখক: মো: জাহাঙ্গীর হোসেন (সাবেক সেনা কর্মকর্তা) জানো আমার না ভীষণ ভালো লাগে ঐ রঙ্গিন উচ্ছল প্রজাপতিকে কি সুন্দর ওর গায়ের রং ভাল লাগে, ওর এ রংমাধুরীকে ছুঁয়ে যাওয়াকে। ধরতে পারি না, ধরতে পারি না

কোহিনূর আক্তার বুকের ভেতরটা যখন ধক ধক করে  কেঁপে উঠে তখনি তোমার স্মৃতি অনেক করে  সামনে এসে দাঁড়ায় ।  এতোটাই কাছে তুমি তবুও নেই আমার আঙ্গিনায় । যখন বকুল ঝরে তখনি তুমি অনায়াসে সামনে এসে  দাড়াও

কোহিনূর আক্তার ছোট পথে ক্লান্ত পথিক  শিতল বাতাসে ঘাম শুকাতো ,  সেই বটতলায়,  সে পথে তোমার গাড়ি যাবে বলে ,  করাতে ফেললে গাছটি ? খালি পায়ে হেঁটে চলা পথিকের কষ্ট  তোমার বিবেকের কাছে তুচ্ছ ? তোমার গাড়ির চাকার

লেখক : মো: জাহাঙ্গীর হোসেন (সাবেক সেনা কর্মকর্তা) নীল বেগুনী জরীর গাঁথুনি লাল চিকচিকের মেলা ঈদ পার্বনে একটু রাঙ্গানো না হলে বল দেখি জমে কি খেলা।

মিষ্টি, পায়েস, জর্দা পোলাও মা রান্না করে নামাজ শেষে, কাঁধে

লেখক : মো: জাহাঙ্গীর হোসেন (সাবেক সেনা কর্মকর্তা) বাংলার জনতা শান্ত ভীষণ ভীষণ শান্ত, কুয়াশা আচ্ছন্ন নিথর শীতের সকালের মত প্রয়োজনে বাঙালী ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে কুয়াশা ছাড়িয়ে, প্রখর সূর্যের ন্যায়, তাপদাহে যেন করে ক্ষত,

সোহেল রানা লাগে বুকে লাগে কেন জানিস? আগলে রাখি তোকে নিজের আগে। রাগ করে তাই বললে কিছু  বুকে লাগে। তুইতো বলে শেষ করে দিস আমার কেমন লাগে একটু ভাবিস। বুকে নদী জন্ম নেয় জলের দাগে। তাই আলগে রাখি তোকে আমি নিজের আগে।

...

কোহিনূর আক্তার আমি তোমাকে ভালবাসি বলতে পারি না । অনেক বাঁধা হৃদয়টাকে বেড়া দেয়,  দগদগে জ্বলতে থাকে ভালোবাসার আগুন  খুব করে তোমাকে আদর করতে ইচ্ছে করে  ইচ্ছে করে তোমাকে জড়িয়ে জীবনের শেষ নামতা পড়তে।

তোমাকে নিয়ে






Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK