বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮
Monday, 29 Oct, 2018 09:37:48 am
No icon No icon No icon

নতুনদের চাকুরীর দেওয়ার প্ল্যাটফরম অব্যাহত রাখবো: এ আর


নতুনদের চাকুরীর দেওয়ার প্ল্যাটফরম অব্যাহত রাখবো: এ আর


টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: বাংলাদেশ ও দক্ষিন এশিয়ার প্রথম ক্ষুদে গণমাধ্যম সংস্থা'র প্রধান নির্বাহী আরিফ রহমান ( এ আর ) বলেছেন, বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, মালদ্বীপ, শ্রীলংকা, নেপাল, ভুটান, পাকিস্থান ও আফগানিস্থানের শিশুদের নিয়ে কাজ করবে তার গড়া প্রতিষ্ঠান 'এ আর কিডস মিডিয়া'। এই নিয়ে আমাদের সংবাদকর্মীর সাথে টেলিফোনে 
সাক্ষাৎকার দিয়েছেন এ আর । টাইমস ২৪ ডটনেটের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো ! 

টাইমস ২৪ ডট নেট: প্রথমে ই শুভেচ্ছা টাইমস পরিবারের পক্ষ থেকে, কেমন আছেন ?
এ আর : ধন্যবাদ ,আলহামদুলিল্লাহ্‌ ভালো আছি । 

টাইমস ২৪ ডট নেট : একুশে টিভি'র অনুষ্ঠান সহকারী থেকে আজ 'এ আর ' হয়েছেন 
এইটা কি করে সম্ভব হলও ? 
এ আর : হূম, ধন্যবাদ মূল্যবান প্রশ্নের জন্য । শুরুতে ধন্যবাদ মহান আল্লাহ কে তারপর ধন্যবাদ স্যার সায়মন ড্রিংক কে যার হাত ধরে শিখে যাত্রা শুরু। আমি অনেক কষ্ট করেছি প্রতিটি মুহূর্তে আমার বস হিসেবে যারা কাজ করেছেন তাদের কখনো অনুষ্ঠান কিংবা সংবাদ প্রযোজনা নিয়ে ভাবতে হয়নি । স্ক্রিপ্ট থেকে নিয়ে উপস্থাপিকা পছন্দ সহ যাবতীয় কাজ মন দিয়ে করতাম । তারপর নিজেও যখন প্রযোজক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি সহকারীদের ভাই হিসেবে আপন করে নিয়েছি । কাজ কে ছোট করে দেখিনি আর তাই হয়তো আপনাদের সবার সহযোগিতা ভালোবাসায় আমি
 'এ আর 'হয়েছি ।
 
টাইমস ২৪ ডট নেট: মিডিয়ায় যাদের অবদান সবচেয়ে বেশী পেয়েছেন ? 
এ আর: প্রথমে শ্রদ্ধার সাথে বলছি যার কথা তিনি রেজায়ুল আহসান বিপুল এই ছাড়া আছেন অগনিত ভাইবোন যারা কাজে উৎসাহ ,সহায়তা না দিলে এতো দ্রুত পারতাম না হয়তো সামনে আগাতে । 

টাইমস ২৪ ডট নেট :  এ আর কিডস '' এখন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কাজ করতে যাচ্ছে কিন্তু সেখানেও আপনি সদ্য পড়াশুনা শেষ করা তরুন তরুণীদের কাজ করার সুযোগ দিচ্ছেন এইটা কেন ? কেনও অভিজ্ঞতা ছাড়া ই নিয়োগের কথা মাথায় আনলেন ? 

এ আর : দেখুন !বাংলাদেশে শিক্ষিত বেকার এর সংখা বাড়তির দিকে এর প্রধান কারন আমি মনে করি , যারা মাত্র পড়াশুনা শেষ করে বের হচ্ছে তাঁদের অফিসিয়াল বাস্তবিক কাজ শিখানো হয়না । যা জরুরী আপনি জেনে অবাক হবেন একটা সিভি তৈরি করতে 
পারে না বেশীরভাগ তরুন তরুণী যা কষ্টদায়ক । এর চেয়েও কষ্টদায়ক এইটাই আসলে কোন পদে কাজ করবে তাও আমাকে ইনবক্স কিংবা কমেন্ট বক্সে জিজ্ঞাসা করে অর্থাৎ দীর্ঘদিন বেকারত্ব তাদের কে হতাশ করে ফেলেছে । যার ফলে আমি এইটাই চিন্তা করেছি শিক্ষানবিশ হিসেবে কাজ শিখিয়ে পারফর্মেন্স দেখে তারপর নিয়োগে যাবো। এতে নতুনদের চাকুরীর সুযোগ যেমন হবে তেমনি আন্তর্জাতিক প্লাটফরমে তারা 
শিখতেও পারবে । কিন্তু এইটা সব পদের ক্ষেত্রে নয় !কিছু পদ থাকে ই যেখানে অভিজ্ঞতা ছাড়া প্রতিষ্ঠান চলতে পারে না । 

 টাইমস ২৪ ডট নেট : কোনটা শুনলে হাঁসি পায় ? 

এ আর : যখন বিভিন্ন জাতীয় গণমাধ্যমের সম্পাদক, সহ সম্পাদক, চীফ রিপোর্টার ভাইবোনেরা কিডস আরিফ বলে ডাকে । 

টাইমস ২৪ ডট নেট:  কোনটা আপনাকে অবাক করেছে চলার পথে ? 

এ আর : মহামান্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ কে নিয়ে অনেকে ই মাঝে ব্যাঙ্গ করেছে ফেসবুকে যা নিয়ে আমি সরব ছিলাম । এমনকি ঢালাওভাবে নিউজ হওয়ার পর বঙ্গভবন থেকে পেয়েছি চায়ের দাওয়াত । যা আমাকে সত্যি ই অবাক করেছে । 

টাইমস ২৪ ডট নেট:  এ আর কিডস যখন করেছিলেন তখন কি ভেবেছিলেন পুরো দক্ষিন এশিয়া জুড়ে কাজ করবে এই প্রতিষ্ঠান ? 
এ আর : দেখুন !আমি যখন শুরু করি তখন মাত্র চাকুরীতে জমানো টাকা দিয়ে সাহস নিয়ে কাজ  করি । আমার স্পষ্ট মনে আছে , মাত্র লাখ খানেক টাকা দিয়ে শুরু তখন 
প্রবাসী কিছু ভাইবোন যাদের অনেকে ই দেশে ছিলেন তারা সহায়তা করে সাহস যুগিয়েছিলেন । বিশ্বাস করুন অফিস প্রথম দিকে  ভাগে চালিয়েছি এরপর দক্ষতার সাথে পরিচালনায় একটু একটু করে পুরো অফিস নেওয়া । 

টাইমস ২৪ ডটনেট: এ আর কিডস করতে গিয়ে যার অবদানের কথা সবচেয়ে বেশী মনে পড়ে ? 

এ আর : উম , মাহবুব আলম ও জাহাঙ্গীর আলম আমার কিডস প্রতিষ্ঠানের দুজন অভিভাবক দুজন ই । 


টাইমস ২৪ ডটনেট: এ আর কিডসের মুল শক্তি কোথায় ? 

এ আর : দক্ষভাবে পরিচালনা , কোয়ালিটি দিয়ে কাজ করা, দক্ষ দেশীয় সংবাদকর্মী 
খবর পাঠক / পাঠিকা দিয়ে আউটপুট বের করে নিয়ে মেধা কে কাজে লাগানো । 

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK