শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮
Wednesday, 10 Oct, 2018 12:42:16 am
No icon No icon No icon

কোন শক্তি আগামী নির্বাচন বানচাল করতে পারে না-মোহাম্মদ নাসিম


কোন শক্তি আগামী নির্বাচন বানচাল করতে পারে না-মোহাম্মদ নাসিম


টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: ১৪ দলের সমন্বয়ক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ১০ বছর আমরা ক্ষমতায় আছি। আমাদের ভুল হতে পারে। মন্ত্রী-এমপিরা ভূল করতে পারে। কিন্তু শেখ হাসিনা কাউকে ক্ষমা করে নাই। মন্ত্রী-এমপিদের ক্ষমা করে নাই। মঙ্গলবার বিকেলে রাজশাহীতে ১৪ দলের জনসভায় এসব কথা বলেন মোহাম্মদ নাসিম। ৭৫ এর ষড়যন্ত্রের চেনা মুখগুলো আবার ষড়যন্ত্রে নেমেছে উল্লেখ্য করে ১৪ দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা দেখেছি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সবাই এক সঙ্গে কাজ করে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করেছেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও এক যোগ সবাইকে মাঠে নামতে হবে। শেখ হাসিনা যাকে নৌকা দেবেন তার পক্ষে মাঠে ঝাড়িয়ে পড়ে বিজয় ছিনিয়ে আনতে হাবে। কারণ শেখ হাসিনার বিজয় ছাড়া আর কোন বিকল্প নাই।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, মেসি-নেইমার গোল মিস করতে পারে; কিন্তু শেখ হাসিনা গোল মিস করবে না। বল এখন শেখ হাসিনার হাতে। তিনি বিজয়ী হবেন। কোন শক্তি আগামী নির্বাচন বানচাল করতে পারে না। যদি কেউ নির্বাচন বানচাল করতে আসে তবে ওলি গলিতে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

এ নির্বাচনে না গেলে বিএনপিকে আর বাটি চালান দিয়েও খুঁজে যাওয়া যাবে না মন্তব্য করেন ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মাদ নাসিম বলেন, নির্বাচন হবেই, সংবিধান অনুযায়ীই হবে, শেখ হাসিনার অধিনেই হবেই, নির্বাচন কেউ ঢেকাতে পারবে না। কেউ যদি নির্বাচনে না আসে তবে তার কবর নিজেই খুড়বেন।

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ওয়ার্কার্স পার্টিার সভাপতি ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, সাম্যবাদী দলের সভাপতি কমরেড দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় পার্টি (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম, তরিতক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজ ভাণ্ডারী, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদত হোসেন, জাসদের স্থায়ী কমিটির সদস্য একেএম রেজাউল করিম তানসেন।

জাহাঙ্গীর করির নানক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন একটি কু-চক্রীদল উন্নয়নের ধারাকে বাধাগ্রস্ত করতে চাচ্ছে। যারা দেশের স্বাধীনতাকে মানতে চায় না, উন্নয়ন চায় না। তাদের বিচার হবে আগামী নির্বাচনে গণজোয়ারে; জনগণ নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়ী করে।

নানক বলেন, ১০ অক্টোবর ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় ঘোষণা হবে। এ রায়ের পর কেউ যদি টু শব্দও করে তাকে কোনভাই ছাড় দেয়া হবে না।

রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এ নির্বাচনে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখবো না বিএনপি-জামায়াতের সেই দুশাসনে ফিরে যাব।’

মেনন বলেন, আমরা জানি বিএনপি একটি বৃহৎ দল, এর নেত্রী খালেদা জিয়া দুইবার প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু আমরা এখন দেখছি সেই বিএনপি তাদের রাজনীতি বর্গা গিয়েছেন। জাতীয় ঐক্যজোটের নামে বিএনপিকে বর্গা দেয়া হয়েছে। এতোদিন শুনে এসেছি গরু বর্গা দেয়া হয়। কিন্তু এখন দেখছি বিএনপি নেতারা তাদের দলকে বর্গা গিয়েছে। কাদের বর্গা গিয়েছে যারা সেনা শাসনকে মদদ দিয়ে মাইনাস টু ফরমলা প্রবর্তন করেছিলেন।
জনসভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী এমপি, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি, রাজশাহী-৪ আসনের সংসদ সদস্য প্রকৌশলী এনামুল হক, রাজশাহী-৫ আসনের এমপি আব্দুল ওয়াদুদ দারা, রাজশাহী-৩ আসনের এমপি আয়েন উদ্দিন, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি বেগম আখতার জাহান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, নগর বাংলাদেশ জাসদ সভাপতি নুরুল ইসলাম হিটলার,সাধারন সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, প্রমূখ।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK