বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন ২০১৮
Thursday, 14 Jun, 2018 05:35:01 pm
No icon No icon No icon

শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীনের ছেলের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার


শহীদ সাংবাদিক সেলিনা পারভীনের ছেলের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার


কাউসার আকন্দ, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা : রাজধানীর খিলগাঁও রেল লাইন এলাকা থেকে একাত্তরে শহীদ বুদ্ধিজীবী সাংবাদিক সেলিনা পারভীনের ছেলে সুমন জাহিদের (৫২) ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার সাক্ষী ছিলেন সুমন। এটি হত্যা না আত্মহত্যা এ বিষয়ে তদন্ত করছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১০টায় খিলগাঁও বাগিচা এলাকার রেল লাইনের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তার শরীর থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ছিল। নিহতের মরদেহ কমলাপুর রেলওয়ে থানা থেকে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়েছে। কমলাপুর রেলওয়ে থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আনোয়ার হোসেন নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে এর সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুত করেছেন। তিনি বলেন, শাহজাহানপুর থানা পুলিশের একজন এসআইর ফোন পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করি। তার শরীর ও মাথা দুইভাগ ছিল। এছাড়া ডান কানের ওপরে ও কপালে দুটা ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ট্রেনের কোনো যন্ত্রাংশ লেগে ক্ষতগুলো সৃষ্টি হয়েছে। মৃত্যুর কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ট্রেনে কাটা পড়েছে এটা নিশ্চিত হলেও কোন ট্রেনের সঙ্গে কাটা পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। তবে পরিবারের কেউ হত্যার দাবি করেননি। সুমন জাহিদ উত্তর শাহজাহানপুর এলাকায় থাকতেন। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত পলাতক চৌধুরী মাঈনুদ্দিন ও আশরাফুজ্জামান খানের বিরুদ্ধে সাক্ষী ছিলেন।
ঢাকা রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইয়াসিন আহমেদ ফারুক জানান, ধারণা করা হচ্ছে সকাল ১০টার দিকে রেললাইন পার হওয়ার সময় ট্রেনে কাটা পড়েন সুমন জাহিদ। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে দুপুরে আমরা তার লাশ উদ্ধার করি। দুর্ঘটনায় তার দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ইয়াসিন আহমেদ ফারুক আরো বলেন, নিহত সুমন জাহিদ একাত্তরে শহীদ বুদ্ধিজীবী সাংবাদিক সেলিনা পারভীনের ছেলে বলে আমরা জানতে পেরেছি। সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
শাজাহানপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মাবুদ বলেন, নিহত সুমন জাহিদ শহীদ বুদ্ধিজীবী সাংবাদিক সেলিনা পারভীনের ছেলে। এছাড়াও তিনি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত দুই জনের বিরুদ্ধে সাক্ষী ছিলেন বলেও আমরা জানতে পেরেছি। তিনি বলেন, ট্রেনে কাটা পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলেই প্রাথমিকভাবে আমরা জানতে পেরেছি। রেলওয়ে এলাকা থেকে লাশ উদ্ধার হওয়ায় বিষয়টি রেল পুলিশই দেখছে।
প্রসঙ্গত, সুমন জাহিদ আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত পলাতক চৌধুরী মাঈনুদ্দিন ও আশরাফুজ্জামান খানের বিরুদ্ধে সাক্ষী ছিলেন। সর্বশেষ তিনি বেসরকারি ফারমার্স ব্যাংকে চাকরিরত ছিলেন। এর আগে সুমন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নাইনে সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অ্যাকাউন্ট্যান্ট ছিলেন। পরিবার নিয়ে সুমন জাহিদ রাজধানীর উত্তর শাজাহানপুরে থাকতেন।

 

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK