শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯
Sunday, 16 Dec, 2018 01:09:51 am
No icon No icon No icon

বিজয় দিবসে তারকাদের মন্তব্য


বিজয় দিবসে তারকাদের মন্তব্য


জিয়াউদ্দীন চৌধুরী (জেড সেলিম), বিশেষ প্রতিনিধি, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা : বাংলাদেশের সুদীর্ঘ রাজনৈতিক ইতিহাসে শ্রেষ্ঠতম ঘটনা ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর মহান মুক্তিযুদ্ধ। সশস্ত্র স্বাধীনতা সংগ্রামের এক ঐতিহাসিক ঘটনার মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতির সামাজিক রাজনৈতিক স্বপ্ন সাধ পূরণ হয় এ মাসে। ত্রিশ লাখ শহীদ আর দু’লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমহানির মাধ্যমে অর্জিত স্বাধীনতার স্বাক্ষর বিজয়ের মাস ডিসেম্বর।গোটা দেশ প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে বিজয় উদযাপনের জন্য।বিজয়ের ৪৫টি বছর পার করেছেন স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিকরা। এতটা বছর পার করে বর্তমান সময়ে এসে আমাদের তারকা শিল্পীদের মন্তব্যই বা কী? বিজয় দিবস উপলক্ষে তারকাদের  মন্তব্য নিয়ে লিখেছেন জিয়াউদ্দীন চৌধুরী (জেড সেলিম)। লিয়াকত লাকী(নাট্যকার): ১৭৫৭ থেকে ১৯৭১। নবাব সিরাজ থেকে বঙ্গবন্ধু। ২৩জুনের কালরাত থেকে ২৫ মার্চের কালরাত।বিশাল ইতিহাস। সংগ্রামের, যুদ্ধের, বিজয়ের। যেমন রক্তাক্ত, ক্ষত-বিক্ষত। বেদনা বিধূর! তেমনি আত্মমর্যাদার! অস্তিত্বের! গৌরবের!দিন আসে দিন চলে যায়! আনুষ্ঠানিকতায়, পালা-পার্বনে, উৎসবে-স্মরণে পালিত হয় দিবস। থেকে যায় স্মৃতি। শুধু আচারে নয়- চেতনায় যদি ধারন করতে পারি সেই প্রকৃত মৌলিক আবেদনকে- তবেই তা আমাদের শিক্ষা, অভিজ্ঞতা, ভবিষ্যত পথ চলার দিশারী হয়ে আমাদের চালিত করবে।

 ঝুনা চৌধূরী(নাট্যকার): প্রজন্মের পর প্রজন্ম পার হয়েছে। হচ্ছে। আমরা মুক্তির চেতনা থেকে ঘুরে কর্পোরোট গোলামি চেতনায় বুদ হয়ে যাচ্ছি। সুশিলতা আর শান্তিপ্রিয়তার নামে আমরা নপুংষক হয়ে যাচ্ছিনাতো?আজ ৪৬ বছর পরে পেছনে ফিরে দেশের খতিয়ানের দিকে তাকিয়ে বড়ই বেদনা বিধূর চিত্তে বলতে হয়- আমরা কি সত্যিই পেয়েছি আমাদের কাংখিত স্বাধীনতা?মৌলিক অধিকার গুলোর নিশ্চয়তা?ভোট, ভাত, আর মতপ্রকাশের স্বাধীনতা?

 আনিসূল হক হিরূ(নৃত্যশিল্পী): জ্বলন্ত প্রশ্নের মূখোমূখি হয়ে পালিত হোক বিজয় দিবস। বিজয়ের প্রকৃত স্বাদাস্বাদনের জন্যই। প্রতি বছর একটা বিষয় নির্ধারিত হোক সমাধানের লক্ষ্যে। আগামী বর্ষ শিক্ষার, পরের বছর স্বাস্থ্য, নদী, নিরাপত্তা, নারী অধিকার দূর্নিতি দমন এভাবে প্রতিটি বছরকে কোন সুনির্দীষ্ট বিষয়ে লক্ষ্য অর্জনের শপথ নিয়ে পালিত হোক বিজয় দিবস। পরবর্তী বছরে অগ্রগতি মূল্যায়নের মাধ্যমে। শহীদদের আত্মত্যাগ যেন বৃথা না যায় এটাকে হৃদয়ে মস্তিকে চেতনায় নিবিঢ় সত্য হিসেবে ধারন করে।

 

তামান্না রহমান(নৃত্যশিল্পী):ভাবলেও বুকটা অহংকারে স্ফীত হয়, দেহ-মন শিহরিত হয়.....- কি দুর্দম, অসীম সাহসী আর দেশপ্রেমে ভরপুর সেই চেতনা বিশ্ব দেখেছে ৭১-এ। নিশ্চিত বন্দুকের নলের মূখেও চিৎকার করে আকাশ বাতাস কাঁপিয়ে গাইত দেশ-প্রেমের গান- "জয় বাংলা!"রক্তের হোলিতে ভিজে যেত মা, মাটি আর দেশপ্রেমিকের মন। চোখে জলের বদলে জ্বলত বহ্ণি শিখা। মরতে মরতে মৃত্যুর ভয় ভুলে গেছিল সবাই। বরং মৃত্যুকেই যেন খুঁজতো! খুঁজতে খুঁজতেই পেয়ে গেল স্বাধীনতা।

 শাকিলা জাফর(সঙ্গীত শিল্পী): জ্বলন্ত প্রশ্নের মূখোমূখি হয়ে পালিত হোক বিজয় দিবস। বিজয়ের প্রকৃত স্বাদাস্বাদনের জন্যই। প্রতি বছর একটা বিষয় নির্ধারিত হোক সমাধানের লক্ষ্যে। আগামী বর্ষ শিক্ষার, পরের বছর স্বাস্থ্য, নদী, নিরাপত্তা, নারী অধিকার দূর্নিতি দমন এভাবে প্রতিটি বছরকে কোন সুনির্দীষ্ট বিষয়ে লক্ষ্য অর্জনের শপথ নিয়ে পালিত হোক বিজয় দিবস। পরবর্তী বছরে অগ্রগতি মূল্যায়নের মাধ্যমে। শহীদদের আত্মত্যাগ যেন বৃথা না যায় এটাকে হৃদয়ে মস্তিকে চেতনায় নিবিঢ় সত্য হিসেবে ধারন করে।

 বুলবুল টুম্পা(কোরিওগ্রাফার): জনগণের চাওয়া-পাওয়ার প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই আমাদের জাতিকে সামনে এগিয়ে নিতে হবে জনগণের ইস্পাত-কঠিন ঐক্য গড়ে। জনগণের মধ্যে বিভাজন জিইয়ে রেখে, এই বিভাজন আরো বাড়তে দিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়া যায় না। এ উপলব্ধি আমাদের মধ্যে যত বেশি করে আসবে ততই মঙ্গল। মঙ্গলের সড়ক ধরে হোক আমাদের সবার পথচলা। স্বাধীনতার ৪৭তম বিজয় দিবসে এই হোক আমাদের সকলের প্রতিশ্রুতি।

 এড্লফ খান(কোরিওগ্রাফার):বিজয় কথাটির সঙ্গে সেই জন্ম থেকেই পরিচিত। আমার কাছে বিজয় দিবস মানে হচ্ছে আমার প্রতিটি পথচলায় আনন্দ থাকবে। আমার কাছে শুধু ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস এমনটা নয়। আমার কাছে আছে ২১শে ফেব্রুয়ারি, আছে ২৬ মার্চ, আছে পহেলা বৈশাখ। এই সব কিছুই কিন্তু আমাদের দেশের জন্য নাগরিকদের জন্য। তাই শুধুমাত্র বিজয় দিবসকে কেন্দ্র করে ডিসেম্বর মাস মন দিয়ে পালন করলাম। বিজয় থাকবে সারা বছর। এখন একটু ব্যস্ততার কারণে হয়তো সাভারে স্মৃতিসৌধে যাওয়া হয় না। কিন্তু ২১শে ফেব্রুয়ারি আমার শহীদ মিনারে ঠিকই যাওয়া হয়। আমি সবসময় চেষ্টা করি দেশীয় এইসব দিবসে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখতে।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK