বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৯
Monday, 17 Dec, 2018 12:45:32 pm
No icon No icon No icon

জনগণের ভালোবাসায় আমিই এগিয়ে : ফারুক


জনগণের ভালোবাসায় আমিই এগিয়ে : ফারুক


আহমেদ সাব্বির রোমিও, বিশেষ প্রতিনিধি, টাইমস ২৪ ডটনেট, ঢাকা: সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ঢাকা-১৭ আসন থেকে নৌকার প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে নেতাকর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় এখন চরম ব্যাসত সময় পার করছেন নায়ক ফারুক । ভক্তদের প্রচারণার অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে ফারুক বলেন, ‘আমি অভিভূত মানুষের ভালোবাসায়। তিনি বলেন ," আমি মনে করি জনগণের ভালোবাসায় আমিই এগিয়ে " । সেই কবে কবে কী কী সিনেমা করেছি মানুষ তা এখনো মনে রেখেছে। ছুটে আসছেন একদম ঘরের মানুষের মতো।

এই কয়েকদিনের প্রচারণায় ভীষণ মুগ্ধ হয়েছি। বিশেষ করে ভাষানটেক এলাকায় গিয়ে আমি আপ্লুত হয়েছি। মাথা নিচু করে কেঁদেছি। মানুষ আমাকে এতো ভালোবাসে। আমার কাছে মনে হলো নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর তাদের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছি। আর তারা আমাকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে।

আমি তাদের ওয়াদা দিয়ে এসেছি, নির্বাচিত হয়ে সংসদে যেতে পারলে ভাষানটেকের দুঃখী মানুষগুলোর জন্য সবার আগে কথা বলবো, ওদের উন্নয়নে কাজ করবো। আমি তাদের জীবন যাপনে পরিবর্তন আনার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো।’

ঢাকা ১৭ আসনে অনেক হেভিওয়েট প্রার্থি রয়েছে। তাদের সঙ্গে নির্বাচনে ভয়ের কিছু দেখছেন না নায়ক ফারুক। তিনি বলেন, ‘রাজনীতিতে যিনি মানুষের কথা বলবেন, মানুষ ভালোবাসবেন, মানুষকে কিছু উপহার দিতে পারবেন তিনিই হেভিওয়েট।

যারা মানুষের ভালোবাসা পায়। তাদের উন্নয়নে কাজ করেন। তাদের ভালোবাসা নিয়ে সংসদে কথা বলেন তারাই জয়ী হন। সেদিক থেকে আমি নিজেকেই এগিয়ে রাখছি। কারণ, এই কয়দিনে দেখেছি কে কী ধরনের রাজনীতি করেন। তাদের নিয়ে মানুষের কী ধারণা।’

চলচ্চিত্রের মানুষ হিসেবে এখানকার উন্নয়নে কী ধরনের ভূমিকা রাখবেন, এমন প্রশ্নের জবাবে ফারুক বলেন, ‘সংসদ জাতির ভাগ্য নির্ধারণ করে। আর সিনেমা হলো জাতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটা জায়গা। সংসদে যেতে পারলে অবশ্যই সিনেমার কথা বলবো। সিনেমায় কী সমস্যা আছে সেটা আমার চেয়ে কেউ ভালো বলতে পারবে না। আমি চলচ্চিত্রের দিন ফিরিয়ে আনতে যা করা সম্ভব চেষ্ট করবো।

তবে বিজয়ী হলে সবার আগে আমি ভাষানটেক এলাকাবাসীর জন্য কথা বলবো। তাদের জন্য আমি কিছু একটা করবো। ওদের জীবন যাত্রার মান আমাকে কষ্ট দিয়েছে। ওরা সত্যিকারের পরিশ্রমী ও সৎ মানুষ। তারা ভালোবাসতে জানে। আমি তাদের ভালোবাসার প্রতিদান দিতে চাই।’

ঢাকা-১৭ আসন থেকে মহাজোটের শরিক দল জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ আর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের খানও এই আসন থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। কিন্তু গোড়া থেকেই ফারুক ছিলেন প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাসী।

ঢাকার গুলশান-বনানী-ঢাকা সেনানিবাস-ভাষানটেকের কিছু অংশ নিয়ে ঢাকা-১৭ আসন। শুরুতে গাজীপুর-৫ (কালীগঞ্জ) থেকে মনোনয়ন চেয়েছিলেন, কিন্তু দল তাকে ঢাকা-১৭ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহের পরামর্শ দেয়। স্কুলজীবন থেকে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ফারুক।

ঢাকা-১৭ আসন থেকে তিনি মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। চূড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়ার আগে একটা শঙ্কা দেখা দেয়। সব আশঙ্কা দূরে ঠেলে অবশেষে আওয়ামী লীগ থেকে আগামী নির্বাচনের চূড়ান্ত মনোনয়ন পান ফারুক।
প্রসঙ্গত, নায়ক ফারুক স্কুলজীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। ১৯৬৬ সালে ছয় দফা আন্দোলনে যোগ দেন। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহভাজন ছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাকে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য অনুপ্রাণিত করেছিলেন।

চিত্রনায়ক, পরিচালক, প্রযোজক- একাধিক পরিচয়ে তিনি পরিচিত। সব ছাপিয়ে ভক্তদের কাছে তার বড় পরিচয় তিনি ‘মিয়া ভাই’। একসময় ‘সুজন সখী’, ‘নয়নমনি’, ‘সারেং বৌ’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘সাহেব’, ‘আলোর মিছিল’, ‘দিন যায় কথা থাকে’সহ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করেন। এখন তিনি মাঠে নেমেছেন ভোটারের মন জয় করতে। রাজনীতির মঞ্চেও সরব এ অভিনেতা।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK