বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Thursday, 13 Sep, 2018 02:09:20 am
No icon No icon No icon

নাইক্ষ্যংছড়ির ত্রাস আনোয়ার ডাকাত বাহিনীর প্রধান আটক


নাইক্ষ্যংছড়ির ত্রাস আনোয়ার ডাকাত বাহিনীর প্রধান আটক


এস এম হুমায়ুন কবির,বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার থেকে:নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারির ত্রাস, আনোয়ার হোসেন প্রকাশ  আনাইয়া ডাকাত বাহিনীর প্রধান আনাইয়া  আটক করেছে যৌথ বাহিনী। গতকাল বুধবার বিকেলে নাইক্ষ্যংছড়ির বাইশারীতে পুলিশ, বিজিবি সহ বিভিন্ন আইন শৃংখলা বাহিনীর যৌথ অভিযানে তাকে আটক করা হয়েছে বলে স্হানীয় একাধিক সুত্র দাবী করেছে। নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর শেখ জানান, যৌথ বাহিনীর অভিযানে আনোয়ার ডাকাত কে আটকের খবর শুনেছি। পরে র‌্যাব ৭ এর দায়িত্ব প্রাপ্ত মেজর জানান, বিজিবি আটক করেছে বলে শুনেছি। তবে তিনি নিশ্চিত হয়ে পরে জানাবেন বলে জানান।

সুত্রে জানা যায়, বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি পাহাড়ে অপহরণ-ডাকাতি সহ অপরাধ জগত নিয়ন্ত্রনে আনোয়ার হোসেন প্রকাশ আনাইয়া দীর্ঘদিন ধরে বিশাল একটি শক্তিশালী বাহিনী গঠন করে পার্বত্য বান্দরবান জেলার পুর্বাজ্ঞল ও কক্সবাজার জেলার রামুর পুর্বাজ্ঞল অপরাধের স্বর্গরাজ্যে পরিনত করছিলেন।শীর্ষ সন্ত্রাসী আনাইয়্যা বাহিনীর প্রধান আনোয়ার হোসেন (প্রকাশ আনাইয়্যা)। তার ত্রাসের রাজত্ব এতটা বেপরোয়া ছিল যে, সে বিভিন্ন অপহরন, ডাকাতি খুন, চাদাঁবাজী সহ করে না  এমন কোন কাজ অপরাধ জগতের কাজ নাই আনাইয়া ডাকাত বাহিনী করতো না।স্হানীয় আইনশৃংখলা বাহিনীর একাধিক সুত্র   জানান, এই বাহিনী বিভিন্ন সময়ে রাবার শ্রমিকদের  হুমকি ছাড়াও পুলিশের এসআই আবু মুসাকে সরিয়ে নিতে পুলিশ প্রশাসনের নীতিনির্ধারণী মহল কে আল্টিমেটাম দেন।আল্টিমেটামের সাপ্তাহ কয়েকের মধ্যে বাইশারীর আলোচিত সাহসী পুলিশ কর্মকর্তা আবু মিসা কে সুদুর লক্ষীপুর জেলায় বদলী করায় স্হানীয় জনসাধারন বিষয়টি কে ডাকাত আনাইয়া বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছে বলে মনে করছেন।বাইশারীর বিভিন্নজনের সাথে আলাপ কালে জানা যায়,এস আই মুসা বাইশারীতে যোগদান যখন করেন তখন বাইশারীর আইনশৃংখলার চরম অবনতি।আইনশৃংখলা বাহিনীর হাইকমান্ড হতবিহবল।সেই মুহুর্তে বাইশারী পুলিশ ফাঁডিতে যোগদেন এস আই মুসা।তিনি যোগদানের পর আনাইয়া বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্য কে আটক করেন। ধীরে ধীরে আনাইয়া ডাকাত বাহিনীর সংখ্যা কমতে থাকায় আনাইয়া ডাকাত এস আই মুসার উপর চরম ক্ষোব্ধ হয়ে উঠেন।আনাইয়া ডাকাত এস আই মুসাকে বাইশারী থেকে সরানোর আল্টিমেটাম দিয়ে রাবার বাগানের শ্রমিকদের হত্যার হুমকি দিয়ে রাবার শিল্প অচল করে দেন।

প্রসঙ্গত, এসআই আবু মুসা বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে কর্মরত অবস্থায় তার বাহিনীর ৯সদস্যকে গ্রেফতারের মাধ্যমে বাহিনী ছত্রভঙ্গ ছাড়াও একাধিক অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছেন। এর আগে সোমবার (২৭আগষ্ট) সকালে উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের আলীক্ষ্যং মাল্টাবাগান এলাকায় ৪০-৫০জন শ্রমিকদের গতিরোধ করে প্রান নাশের হুমকি দেন আনাইয়্যা।

এদিকে গত ৬ আগষ্ট একই স্থানে রাবার শ্রমিকদের একত্রিত করে ওই এলাকার রাবার বাগানে পরদিন থেকে কাজ না করতে বারন করেছিল শীর্ষ এই সন্ত্রাসী। এই ঘটনা  বিভিন্ন গন মাধ্যমে প্রকাশ হলে প্রশাসনে কিছুটা টনক নড়ে। আনাইয়্যাকে ধরতে পুলিশ ও বিজিবি অভিযান জোরদার করা হয়।

ওই সময়ে সোমবার রাবার বাগান থেকে ফিরে আসা চিত্রনায়ক সোহেল রানার মালিকানাধীন রাবার বাগানের শ্রমিক নুরুল আমিন, রেজা খান, হামিদ কোম্পানীর ম্যানেজার আবদুল মালেক, সুপারভাইজার মো: শফি এই প্রতিবেদককে বলেন- ‘ইতোপূর্বে আনাইয়্যা কাজে যেতে নিষেধ করেছিল। কিন্তু এবার পুলিশের এসআই আবু মুসাকে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র থেকে সরিয়ে নিতে প্রকাশ্যে হুমকি দেয় সে। এসময় আনাইয়্যা সহ অস্ত্রধারী তিনজন ছাড়াও আশপাশের জঙ্গলে আরো সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছিল বলে জানান তারা। বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আলম কোম্পানী আমাদের সময় ডট কমকে বলেন- বাইশারীর ভৌগলিকগত কারণে আনাইয়্যাকে ধরতে সাময়িক বিলম্ব হলেও, তারা সফলতার আলো দেখেছে।
ডাকাত আনাইয়া কে গ্রেপ্তার করার খবরে এলাকার জনসাধারন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে।অনেকে শুকরিয়া নামাজ আদায় সহ মিষ্টি বিতরণ করার খবর মিলেছে।

এই রকম আরও খবর




Editor: Habibur Rahman
Dhaka Office : 149/A Dit Extension Road, Dhaka-1000
Email: [email protected], Cell : 01733135505
[email protected] by BDTASK